Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাত নামলেই দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ার ফেরিতে বসে জুয়ার আসর

জুয়ার আসর বসিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে চক্রটির বিরুদ্ধে

আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ১০:৩৭ পিএম

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-রুটে চলাচলকারী ফেরিগুলোতে মধ্যরাতে নিয়মিত জুয়ার আসর বসিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্র হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পাশাপাশি জুয়া খেলার ফাঁকে সক্রিয় হয়ে উঠেছে ছিনতাইকারীরাও।

জুয়ার ফাঁদে পড়ে সর্বস্ব খোয়ানো যাত্রীরা ঝামেলা এড়াতে পুলিশ বা প্রশাসনের কাছে অভিযোগও করেন না।

ফেরিতে প্রতি রাতে দুই শতাধিক নৈশ কোচসহ সহস্রাধিক যানবাহন পারাপার করে। এসব যানবাহনে যাতায়াতকারী হাজার হাজার যাত্রীর জন্য নেই পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এই সুযোগে বসে জুয়ার আসর।

জুয়ার আসরের এই চক্রের সদস্য সংখ্যা অন্তত ২০ জন। পাটুরিয়া থেকে ছেড়ে দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত যে সময়টুকু লাগে সে সময়ে চলে এই আসর। চক্রটি যাত্রীদের নানা লোভ দেখায়। এ সময় চক্রের সদস্যরা বলতে থাকেন, “যা লাগাবেন, তার ডাবল।” এতে অনেকেই লোভে পরে জুয়ায় অংশ নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন।

যশোরগামী রফিক হোসেন নামে এক যাত্রী জানান, তিনি দুইবারে ১০ হাজার টাকা হেরেছেন। এইগুলা দ্রুত বন্ধ করা প্রয়োজন।

ফেরিতে থাকা এক হকার বলেন, “এটা অনেক দিন ধরেই হয়ে আসছে। পুলিশও তেমন কিছু বলে না। ফেরি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারাও সব জানে।”

রাতে যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ আছে চক্রটির বিরুদ্ধে। দৌলতদিয়া ঘাটের নৌ-পুলিশ ফাঁড়ি সূত্রে জানা যায়, এসব ঘটনায় গত জানুয়ারিতে তিনটি মামলা হয়েছে। এতে ১৬ জনকে আসামি করা হয়েছে।

দৌলতদিয়া ঘাট নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, “জনবল সংকটের কারণে চলাচলকারী সব ফেরিতে পুলিশি পাহারা সম্ভব হয় না। যে ফেরিতে পুলিশ থাকে, জুয়াড়ি চক্র সেটি এড়িয়ে চলে। যে ফেরিতে পুলিশ থাকে না সেই ফেরিতে এ সব অপকর্ম করে থাকে।”

মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “এসব বিষয়ে ১৬ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।” এই চক্রে ২০ থেকে ২৫ জন সদস্য রয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া কার্যালয়ের ব্যবস্থাপক মো. শিহাব উদ্দিন বলেন, “রাতে ফেরিতে জুয়া খেলার ঘটনায় নৌ-পুলিশ তৎপর রয়েছে। চক্রটি ফেরিতে যাত্রীবেশে থাকায় তাদেরকে ধরতে অসুবিধা হচ্ছে।” তিনি এ সময় যাত্রীদেরও লোভে পরে জুয়া না খেলার অনুরোধ করেন।

About

Popular Links