Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজশাহীর আদালতে পাবনার ওসিকে এক টাকা জরিমানা

পর পর ছয়বার সমন পাঠানোর পরও সাক্ষ্য দিতে না আসায় পাবনার আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলীকে এক টাকা জরিমানা করেছেন আদালত

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২২, ০৮:৫১ পিএম

পর পর ছয়বার সমন পাঠানোর পরও সাক্ষ্য দিতে না আসায় পাবনার আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রওশন আলীকে এক টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা।

মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুরে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জিয়াউর রহমান পুলিশ পরিদর্শক রওশন আলীকে এ দণ্ড দেন।

জরিমানার টাকা পরিশোধ না করলে আদালতের কার্যক্রম যতক্ষণ চলবে ততক্ষণ ওসির কারাদণ্ডেরও আদেশ দেওয়া হয়। তবে পুলিশের পরিদর্শক রওশন আলী জরিমানার এক টাকা পরিশোধ করেন। পরে আদালতের পেশকার হেমন্ত বর্মণ সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে টাকাটি রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা জানান, রওশন আলী আগে পাবনা জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) কর্মরত ছিলেন। ২০১৮ সালে ৬ আগস্ট নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এক যুবককে আটক করেন। তখন তিনি ওই যুবকের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। এই মামলায় অন্য সব সাক্ষীরই সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত। তবে ইনফরমেন্ট সাক্ষী হিসেবে রওশন আলীকে সাক্ষ্য দেওয়ার জন্য পর পর ছয়বার সমন পাঠানো হয়। কিন্তু তিনি আদালতে আসেননি।

তিনি আরও জানান, পরে আদালত রওশন আলীর মোবাইলের হোয়াটস অ্যাপে আদালতের সমনের ছবি পাঠান। এতেও কোনো উত্তর না দিয়ে তিনি সাক্ষ্য দেওয়া থেকে বিরত থাকেন। ফলে মামলার স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়। তাই ২৬ জানুয়ারি তাকে একটি কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠান আদালত। কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে এই নোটিশ পাঠানো হয়।

এরপর মামলার নির্ধারিত দিনে মঙ্গলবার হাজির হন ওসি। এ সময় তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তবে আগেও সমন অবজ্ঞা করার রেকর্ড থাকায় এবং তার মধ্যে কোনো অনুশোচনা না থাকার কারণে আদালত ন্যায় বিচারের স্বার্থে ওসিকে জরিমানা করেন।

About

Popular Links