Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আগুনে পুড়লো ২ হাজার কোটি টাকা অর্থপাচার মামলায় জব্দ ১২ বাস

বাসগুলো আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের মালিকানাধীন ছিল

আপডেট : ১২ মার্চ ২০২২, ০২:৪০ পিএম

ফরিদপুরে ২ হাজার কোটি টাকা অর্থপাচার মামলায় আদালতের জব্দ করা সাউথ লাইন পরিবহনের ১২টি বাস পুড়ে গেছে বলে জানা গেছে।

শনিবার (১২ মার্চ) সকালে ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

বাসগুলো দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অর্থপাচার মামলায় গ্রেপ্তার, আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের মালিকানাধীন  ছিল।

এসপি আলিমুজ্জামান জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে শহরের গোয়ালচামটে নতুন বাস টার্মিনালের পাশে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। তবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ এখনও জানা যায়নি।

এসপি আরও জানান, ২২টি বাস ছিল সেখানে। এর মধ্যে ১২টি বাসই আগুনে পুড়ে গেছে। দীর্ঘদিন বাসগুলো ফেলে রাখার ফলে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতে হঠাৎ করেই বাসগুলোতে দাউদাউ করে আগুন জ্বলতে শুরু করে। পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়।

সারিবদ্ধভাবে খোলা জায়গায় রাখা বাসগুলোতে আগুন লাগার বিষয়টি রহস্যজনক বলে মনে করছেন তারা।

এ ব্যাপারে ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক শিপলু আহমেদ বলেন, “খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস যখন ঘটনাস্থলে যায় তখন সবগুলো বাসেই আগুন জ্বলছিল। পরে, রাত আড়াইটার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এর মধ্যে কয়েকটি বাস আংশিক পুড়েছে। তবে আগুনের কারণ এখনও জানা যায়নি।”

তিনি জানান, “কোনো দাহ্য পদার্থ দিয়ে আগুন লাগানো হয়েছে কি-না তাও এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। তদন্তসাপেক্ষে পরবর্তীতে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।”

গ্রেপ্তার বরকত ও রুবেলের বোনের ছেলে রাজিবুল ইসলামের অভিযোগ, “বরকত ও রুবেল রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। বাসগুলো আগে নিরাপদ জায়গায় ছিল। পরে, মিজান চৌধুরী ক্ষমতাবলে বাসগুলো নিরাপদ জায়গা থেকে সরিয়ে দিয়েছে। তারাই বাসগুলোতে আগুন লাগিয়েছে।”

এ বিষয়ে ফরিদপুরের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম. এ. জলিল বলেন, “২০২০ সালের ৭ জুন পুলিশের অভিযানে বরকত ও রুবেল গ্রেপ্তার হওয়ার পর আদালতের নির্দেশে দুদক বাসগুলো জব্দ করে। এরপর থেকে বাসগুলো এখানেই রাখা ছিল।”

About

Popular Links