Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

২৭ মার্চ থেকে রাজশাহী-রংপুর বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট

গতবছর হানিফ এন্টারপ্রাইজ যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৭ জন নিহত হন। সে ঘটনায় গ্রেপ্তার বাসচালকের জামিনের দাবিতে এ ধর্মঘট

আপডেট : ২৪ মার্চ ২০২২, ০৯:৩১ পিএম

রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে আগামী ২৭ মার্চ ভোর ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন রাজশাহী বিভাগীয় কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৪ মার্চ) বিকেলে রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। 

এ ধর্মঘটে যাত্রীবাহী বাস, মালবাহী ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, মাইক্রোবাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা বন্ধ থাকবে।

সংবাদ সম্মেলনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী। তিনি বলেন, “গত বছরের ২৬ মার্চ রাজশাহীর কাটাখালিতে হানিফ এন্টারপ্রাইজ যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৭ জন নিহত হন। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার বাসচালকের এখনও জামিন দেওয়া হয়নি। অথচ তার জামিনের দাবিতে ফেডারেশনের নেতারা বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে।

কারাবন্দি বাসচালকের মুক্তি দাবি করে গত ১৫ মার্চ মানববন্ধন করেন সড়ক পরিবহন শ্রমিকরা। পরদিন সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের রাজশাহী ও রংপুর বিভাগীয় আঞ্চলিক কমিটির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার ওই বাসচালকের জামিন শুনানি ছিল। কিন্তু আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেন।

এ প্রসঙ্গে শ্রমিক নেতা মাহাতাব হোসেন চৌধুরী বলেন, “আমরা আগেই ঘোষণা দিয়েছিলাম ২৪ মার্চের মধ্যে বাসচালক আব্দুর রহিমের জামিন না হলে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট শুরু হবে।”

সংবাদ সম্মেলনে জেলা ট্রাক ও ট্যাংক লরি এবং কাভার্ড ভ্যান সমিতির সহ-সভাপতি হারুন-অর-রশীদ ছাড়াও শ্রমিক ইউনিয়ন মাইক্রো শাখা, জেলা মিশুক ও সিএনজি মালিক সমিতির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ২৬ মার্চ রাজশাহীর কাটাখালিতে হানিফ এন্টারপ্রাইজের বাসের ধাক্কায় মাইক্রোবাসে আগুন ধরে যায়। এতে মাইক্রোবাসেই জীবন্ত পুড়ে ১৭ জনের মৃত্যু হয়। পরে এ ঘটনায় মামলা হয়। এছাড়া তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে বলা হয়, বেপরোয়া গতিতে বিপজ্জনক ওভারটেকিং করে হানিফ এন্টারপ্রাইজ বাস। এ কারণেই সড়কে জীবন্ত মানুষগুলো পুড়ে ছাই হয়ে যান।

About

Popular Links