Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পাবনায় ৬৩ হাজার লিটার তেল জব্দ করে ঈদের আগের দামে বিক্রি

অবৈধভাবে ভোজ্যতেল মজুত করে রাখার অপরাধে তিন ব্যবসায়ীকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত

আপডেট : ১১ মে ২০২২, ১১:২১ পিএম

পাবনার সুজানগর, কাশিনাথপুর ও সাঁথিয়া উপজেলার বিভিন্ন গুদামে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে মজুত করা ৬৩ হাজার লিটার সয়াবিন তেল জব্দ করেছে জেলা প্রশাসন। জব্দ করা তেল ঈদের আগের বাজারমূল্যে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

এ সময় অবৈধভাবে ভোজ্যতেল মজুত করে রাখার অপরাধে তিন ব্যবসায়ীকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জহিরুল ইসলাম জানান, বুধবার (১১ মে) সকালে সুজানগর উপজেলার পৌর শহরের সিনেমা হল সংলগ্ন ঘোষ স্টোরে অভিযান চালায় জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এ সময় ১ হাজার ৪৩৫ লিটার খোলা সয়াবিন তেল ও ১ হাজার ৭০২ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল উদ্ধার করা হয়।

ঈদ-উল-ফিতরের আগে কিনে রাখা এসব তেল মজুত করে বাজারে ভোজ্যতেলের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯-এর ধারা ৪০ ও ৪৫ অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটির মালিক দুলাল ঘোষকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

পরে, বোতলজাত করা ১ হাজার ৭০২ লিটার তেল ঈদের আগের বাজার দরে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, বুধবার সন্ধ্যায় কাশীনাথপুর এলাকায় ব্যবসায়ী সুনীল কুমার ও মীর মো. আবুল খায়েরের গোডাউনে অভিযান চালায় বেড়া উপজেলা প্রশাসন ও গোয়েন্দা পুলিশের যৌথ একটি দল। এ সময় উভয় গোডাউন থেকে ৩০ হাজার লিটার করে মোট ৬০ হাজার লিটার অবৈধভাবে মজুদ করা সয়াবিন তেল জব্দ করা হয়। 

এ অপরাধে ব্যবসায়ী সুনীল কুমারকে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা ও মীর মো. আবুল খায়েরকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় এবং বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সবুর আলি ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে জব্দ করা তেল ঈদের আগের মূল্যে বাজারে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

About

Popular Links