Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাবি উপাচার্য: কারা কি র‌্যাংকিং করল এখন একেবারেই দেখি না

বিশ্ববিদ্যালয়ের মৌলিক সূচকগুলোর মান নিশ্চিত করার আগে বিশ্বসেরা র‌্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থান নিয়ে ভাবতে চান না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান

আপডেট : ১০ জুন ২০২২, ১০:৩১ পিএম

বিশ্বসেরা র‌্যাংকিংয়ে নিজেদের অবস্থান নিয়ে আর ভাবতে চান না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান। তিনি বলেছেন, কতগুলো মৌলিক প্যারামিটার আছে, সেই প্যারামিটারগুলোর উন্নয়ন না ঘটিয়ে র‌্যাংকিংয়ের বিষয়ে আমরা অ্যাটেনশন দেব না। কারা কী র‌্যাংকিং করল, এগুলো এখন একেবারেই দেখি না।

শুক্রবার (১০ জুন) অনলাইন সংবাদমাধ্যম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরকে এ কথা বলেন উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান।

র‌্যাংকিংয়ের বিষয়ে উপাচার্য বলেন, “আমরা এখন শিক্ষা ও গবেষণার মানোন্নয়নে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছি। এগুলোর ফল পাওয়া শুরু করলে র‌্যাংকিংয়ে ভালো কিছু আশা করা যাবে। এর আগে আমরা র‌্যাংকিং নিয়ে ভাবছি না।

উল্লেখ্য, ৮ জুন যুক্তরাজ্যভিত্তিক শিক্ষা ও গবেষণা সংস্থা কোয়াককোয়ারেলি সায়মন্ডসের (কিউএস) বিশ্বসেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করে। ওই র‌্যাঙ্কিংয়ে ৫০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় বাংলাদেশের কোনো বিশ্ববিদ্যালয় নেই। তবে তালিকায় ভারতের ৯টি ও পাকিস্তানের ৩টি বিশ্ববিদ্যালয় স্থান পেয়েছে।

গত বছরের মতো এবারও ৮০১ থেকে ১০০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি)। তবে কিউএস তাদের তালিকায় ৫০০-এর পরে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অবস্থান সুনির্দিষ্ট করে উল্লেখ করেনি। এছাড়া ১০০১ থেকে ১২০০তম বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় রয়েছে দেশের আরও দুই বেসরকারি “ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়” ও “নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়”।

২০১২ সালে কিউএস র‌্যাংকিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৬০১ এর মধ্যে। ২০১৪ সালে তা পিছিয়ে ৭০১তম অবস্থানের পরে চলে যায়। ২০১৯ সালে তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান আরও পেছনের দিকে চলে যায়। ২০২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৮০১ থেকে ১০০০-এর মধ্যে।

About

Popular Links