Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাকায় ফিরছে মানুষ, জাজিরায় পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় দীর্ঘ যানজট

যানজটের কারণে সোমবার রাতে টোলপ্লাজা অতিক্রমের জন্য চালক ও যাত্রীদের ৪০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে

আপডেট : ১২ জুলাই ২০২২, ১১:৩৬ এএম

ঈদ-উল-আজহার ছুটি শেষে ঢাকার কর্মব্যস্ত জীবনে ফিরতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। ফলে ঢাকামুখী যানবাহনের আধিক্যের কারণে সোমবার (১১ জুলাই) রাতে পদ্মা সেতুর শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে টোল প্লাজার সামনে যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে ঢাকামুখী যাত্রীরা বেশ দুর্ভোগে পড়েছেন।

ঢাকামুখী যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় টোলপ্লাজার সামনে থেকে নাওডোবার জমাদ্দার মোড় পর্যন্ত তিন কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়। যানজটের কারণে টোলপ্লাজা অতিক্রমের জন্য চালক ও যাত্রীদের ৪০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

দৈনিক প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার সকালেও পদ্মা সেতুর শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে টোল প্লাজার সামনে যানজট রয়েছে। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সে চিত্রে পরিবর্তন আসতে শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত, পদ্মা সেতু দিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ যাতায়াত করে। সোমবার ছিল ঈদ-উল-আজহার ছুটির শেষ দিন। প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের ছুটি কাটিয়ে মঙ্গলবার সকাল থেকে সাধারণ মানুষের কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের সহকারী প্রকৌশলী পার্থ সারথি বিশ্বাস বলেন, “সোমবার দিনভর পদ্মা সেতু দেখতে আসা মানুষ বিভিন্ন যানবাহন নিয়ে সেতু পাড়ি দিয়ে জাজিরা প্রান্তে এসেছেন। সন্ধ্যার পর তারা মাওয়ামুখী হতে শুরু করেন। ঈদের ছুটি শেষে কর্মজীবী মানুষেরও ঢাকায় ফেরা শুরু হয়। এ কারণে সন্ধ্যার পর টোল প্লাজার সামনে গাড়ির চাপ বেড়ে যায়। তখন টোল প্লাজার সামনে থেকে সংযোগ সড়কে দীর্ঘ যানজট দেখা দেয়। মঙ্গলবার সকালেও যানবাহনের চাপ আছে।”

টোলপ্লাজার ব্যবস্থাপক কামাল হোসেন জানান, সোমবার দিনে কোনো যানজট ছিল না। সন্ধ্যার পর যানজট শুরু হয়। ৬টি বুথে টোল দিয়ে যানবাহন সেতুতে উঠতে পারে। একেকটি গাড়ির টোল দিতে সর্বোচ্চ ৪০-৫০ সেকেন্ড সময় লাগে। যানজট হলেও কোনো বিশৃঙ্খলার ঘটেনি।

পদ্মা সেতু দক্ষিণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “গাড়ির চাপের কারণে যেন কোনো বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি না হয়, সে জন্য ট্রাফিক পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ ও থানার পুলিশ বিভিন্ন পয়েন্টে কাজ করছে।”

About

Popular Links