Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সিইসি: কেউ যদি তলোয়ার নিয়ে দাঁড়ায়, আপনাকেও কিন্তু আরেকটি তলোয়ার নিয়ে দাঁড়াতে হবে

এভাবেই ভোটের মাঠে কেউ শক্তি প্রদর্শন করলে প্রতিরোধ করার করার পরামর্শ দিচ্ছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল

আপডেট : ১৭ জুলাই ২০২২, ০৫:১৯ পিএম

ভোটের মাঠে কেউ শক্তি প্রদর্শন করলে প্রতিরোধ করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল। তিনি বলেন, “আপনাদের সমন্বিত প্রয়াস থাকবে, ভোটের মাঠে কেউ যদি তলোয়ার নিয়ে দাঁড়ায়, আপনাকেও কিন্তু রাইফেল বা আরেকটি তলোয়ার নিয়ে দাঁড়াতে হবে। ভোটের মাঠের সহিংসতা নির্বাচন কমিশন বন্ধ করতে পারবে না।”

রবিবার (১৭ জুলাই) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) সঙ্গে সংলাপে তিনি এমন কথা বলেন।

রাজনৈতিক দলগুলোকে ভোটের মাঠের “খেলোয়াড়” উল্লেখ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এনডিএম দলের প্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলেন, “আপনাদের দায়িত্ব নিতে হবে। আপনারা মাঠে যাবেন, মাঠে খেলবেন। কারণ খেলোয়াড় কিন্তু আপনারা। আমরা রেফারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করব। আমাদের অনেক ক্ষমতা আছে। ক্ষমতা কিন্তু কম না, ক্ষমতা প্রয়োগ করব।”

সিইসির এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে এনডিএমের চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ বলেন, “শটগান নিয়ে দাঁড়ানো পারমিট আইন আমাদের দেয়নি। নির্বাচন কমিশনের অনেক ক্ষমতা আছে, এ দায়িত্ব তাদেরই নিতে হবে। প্রশাসন দিয়ে আপনাদেরই নির্বাচন পরিস্থিতি সুষ্ঠু করতে হবে।”

আগের জাতীয় নির্বাচনের দায় নতুন ইসি নিতে চায় না জানিয়ে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, “আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনের দায় আমাদের ওপর চাপাবেন না। আমাদের নির্বাচনের দায় আমরা বহন করব। আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করব অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন ও নিরপেক্ষ করতে। সরকার সহায়তা না করলে নির্বাচনের পরিস্থিতি মন্দ হতে পারে।”

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নির্দলীয় সরকারের যে দাবি, সে বিষয়ে সিইসি বলেন, “নির্বাচনের সময় যেটি থাকবে সেটি কিন্তু সরকার। রাজনৈতিক দল আর সরকার এক নয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগের সভানেত্রী। কিন্তু তিনি যখন প্রধানমন্ত্রী, তখন রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী; আওয়ামী লীগের কেউ নন। এ বিভাজনটা সবাইকে বুঝতে হবে।”

About

Popular Links