Thursday, June 13, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নবী হোসেন চক্রের ৫ সদস্য অস্ত্র-ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নবী  হোসেন চক্রটি বন্ধক ও কিস্তিতে সাধারণ মানুষকে ইয়াবা দিয়ে আসছিল

আপডেট : ২৭ আগস্ট ২০২২, ০৩:০৫ পিএম

আলোচিত রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নবী হোসেন চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এসময় তাদের কাছ থেকে চার লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা ও একটি বিদেশি একে ২২ রাইফেল, একটি বিদেশি পিস্তল, একটি এসবিবিএল এবং ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (২৭ আগস্ট) দুপুরে র‍্যাব-১৫ এর কক্সবাজার সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খায়রুল ইসলাম সরকার।

গ্রেপ্তার পাঁচজন হলেন- আব্দুল্লাহ রাজ্জাক ওরফে রাজ্জাক মাঝি, ইলিয়াস, সাহেদ, মো. আয়াছ ওরফে আজিজুল ও সাইফুল ইসলাম। এর মধ্যে রাজ্জাক মাঝি ও আজিজুল হক রোহিঙ্গা। বাকি তিনজন বাংলাদেশের নাগরিক।

খায়রুল ইসলাম সরকার জানান, কক্সবাজারের উখিয়া বালুখালীতে আলোচিত রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নবী হোসেন চক্রটি বন্ধক ও কিস্তিতে সাধারণ মানুষকে ইয়াবা দিয়ে আসছিল। সময়মতো টাকা পরিশোধ করতে না পারলে বন্ধক রাখা ব্যক্তিকে নির্যাতন ও হত্যা করা হতো। এছাড়াও এই গ্রুপটি উখিয়া-টেকনাফের ক্যাম্প এলাকায় ইয়াবা পাচার ও বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ড করে আসছিল।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) নবী হোসেনকে ধরিয়ে দিতে পুরষ্কার ঘোষণা করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “বিজিবির ঘোষণার পর থেকে র‍্যাবের গোয়েন্দা সংস্থা কাজ শুরু করে। পরে নবী হোসেন চক্রের হাতে নির্যাতিত কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়।”

তিনি আরও বলেন, “সর্বশেষ মায়ানমার থেকে ইয়াবার বড় একটি চালান বাংলাদেশে প্রবেশ করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালাই। সেখান থেকে নবী হোসেন চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৪ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা ও একটি বিদেশি একে ২২ রাইফেল, একটি বিদেশি পিস্তল, একটি এসবিবিএল এবং ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। তবে মূলহোতা নবী হোসেনকে আটক করা সম্ভব হয়নি।”

About

Popular Links