Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নসরুল হামিদ: দেশে বিদ্যুৎ সরবারহ ব্যবস্থার উন্নতি হচ্ছে

জ্বালানির ক্ষেত্রেও অবস্থা ভালো হবে বলে জানান বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ

আপডেট : ২৭ আগস্ট ২০২২, ০৬:১৯ পিএম

রাশিয়া-ইউক্রেন দ্বন্দ্বের জন্য সারা বিশ্বের অর্থনৈতিক অবস্থা নাজুক, জ্বালানির বাজারকে করেছে চরমভাবে অস্থিতিশীল।এমন পরিস্থিতেও  গত মাসের তুলনায় এ মাসে দেশে বিদ্যুতের অবস্থা ভালো, আরও ভালো অবস্থায় যাবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছে। জ্বালানির ক্ষেত্রেও ভালো অবস্থা হবে বলেও জানান তিনি।

শনিবার (২৭ আগস্ট) অনলাইনে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড আয়োজিত “বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ ও শোকাবহ ১৫ আগস্ট” শীর্ষক আলোচনা সভায় সংযুক্ত থেকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী।

এ সময় তিনি সকলকে ধৈর্য ধরার অনুরোধ করে বলেন, “প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রাখুন। নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই বাংলাদেশ সুখী, সমৃদ্ধ, সোনার বাংলায় পরিণত হবে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “বঙ্গবন্ধুর শান্তি ও প্রগতির মতাদর্শই  বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির মূল শক্তি। তার দূরদর্শী নেতৃত্ব মাত্র সাড়ে তিন বছরের মধ্যেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনানির্ভর একটি সময়োপযোগী আধুনিক রাষ্ট্র গঠনে উন্নয়নের শক্ত ভিত নির্মাণ করেছিল। একটি রাষ্ট্রের জন্য প্রয়োজনীয় এমন কোনও বিষয় নেই যে তিনি স্পর্শহীন রেখেছেন। রাজনীতিবিদ এবং ব্যক্তি হিসেবে বঙ্গবন্ধুর মহানুভবতা, আদর্শিক সংগ্রাম, কষ্ট স্বীকার ও আত্মত্যাগ বিশ্ব ইতিহাসে বিরল।”

তিনি বলেন, “সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জ্বালানি ও বিদ্যুৎ-কে অর্থনৈতিক মুক্তির অন্যতম খাত বিবেচনা করেছিলেন। গ্রাম-গঞ্জের প্রতিটি মানুষ যাতে বিদ্যুৎ পায়, সেজন্য তিনি বিদ্যুতকে সংবিধানের অংশ করেছিলেন, যা বিশ্বের ইতিহাসে নজিরবিহীন ঘটনা। বঙ্গবন্ধু যে কী পরিমাণ দূরদর্শী মানুষ ছিলেন, তা বোঝা যায় তার আরেকটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্তে— মৃত্যুর মাত্র ৫ দিন আগে তিনি শেল ওয়েল কোম্পানির কাছ থেকে পাঁচটি গ্যাসক্ষেত্র কিনে নেন, যেখান থেকে আমরা এখন পর্যন্ত দেশের প্রায় ৪০ ভাগ গ্যাস পাচ্ছি।”

তিনি  আরও বলেন, “২০০৯ সালের পূর্বে সারাদেশে দিনে ১৬-১৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ থাকতো না। সেই কঠিন অবস্থা থেকে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়ে শতভাগ বিদ্যুতায়নের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করেছেন।”

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন— সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী।

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন বিদ্যুৎ সচিব মো. হাবিবুর রহমান।

About

Popular Links