Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এখন পর্যন্ত বাতিল হলো যাদের মনোনয়নপত্র

এবারের নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩০৫৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন

আপডেট : ০২ ডিসেম্বর ২০১৮, ০১:৫০ পিএম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আগ্রহী প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শুরু করেছেন রিটার্নিং অফিসাররা। এদের মাঝে অনেকের মনোনয়নপত্র ইতোমধ্যে বাতিল করা হয়েছে। মনোনয়ন বাতিলকৃত প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছে অনেক হেভিওয়েট ও আলোচিত প্রার্থী। 

এখন পর্যন্ত যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে তারা হলেন—বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ফেনী-১ আসন, হবিগঞ্জ-১ আসনে সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া, ঢাকা-১ আসনে ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু আশফাক ও নবাবগঞ্জ উপজেলার চেয়ারম্যান ফাহিমা হোসাইন জুবলি।

কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের অংশ নিতে ইচ্ছুক গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকার, একই আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাকির হোসেন, ঢাকা-৬ আসনে বিএনপির প্রার্থী সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন, বগুড়া-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম আলম ওরফে হিরো আলম, মাদারীপুর-২ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আল আমিন মোল্লা ও কাদের মোল্লার মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়াও সাবেক আওয়ামীলীগ সংসদ সদস্য, সদ্য বিএনপিতে যোগদানকারী গোলাম মাওলা রনির পটুয়াখালী- ৩ আসনের মনোনয়নও বাতিল করা হয়েছে।  

প্রার্থী যাচাই বাছাই শে‌ষে কু‌ড়িগ্রাম -৩ আস‌নে বিএন‌পি থে‌কে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া আবদুল খা‌লেক, কু‌ড়িগ্রাম-১ আস‌নের স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউল গ‌ণি, কু‌ড়িগ্রাম-২ আসন থে‌কে স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর প্রতীক আব্দুল হাই, চৌধুরী স‌ফিকুল ইসলাম এবং আবু সু‌ফিয়ানের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। 

মানিকগঞ্জ-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দৌলতপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক, একই আসনে জাকের পার্টির প্রার্থীর আতোয়ার রহমান, মানিকগঞ্জ-২ আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক এমপি জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম আব্দুল মান্নান, একই আসনের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মঈনুল ইসলাম শান্ত, বিএনপির প্রার্থী আবিদুর রহমান খান রোমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ হোসেন ও মাসুম মিয়া, মানিকগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী মো. আতাউর রহমানের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। 

এদিকে পঞ্চগড়-১ আসনে বিএনপির মনোনিত প্রার্থী পৌর মেয়র তৌহিদুল ইসলাম এবং পঞ্চগড়-২ আসনে বিএনপির মনোনিত আরেক প্রার্থী ফরহাদ হোসেন আজাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে।

মানিকগঞ্জ-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তোজ্জামেল হোসেন, একই আসনে জাকের পার্টির প্রার্থী আতোয়ার রহমান, মানিকগঞ্জ-২ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ও সাবেক এমপি আবদুল মান্নান, একই আসনে ইঞ্জিনিয়ার  মঈনুল ইসলাম শান্ত, বিএনপি প্রার্থী আবিদুর রহমান খান রোমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোশারফ হোসনে ও মাসুম মিয়ার মনোনয়নপত্র অবধৈ ঘোষণা করা হয়।

ঠাকুরগাঁও-১ আসনে একজন মনোনয়ন প্রার্থী বাদ পড়েছেন। তিনি হলেন জাকের পার্টির আল মামুন।

হবিগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যাপক মো. আব্দুল হান্নান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আবু হানিফা আহমদ হোসেন, ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশ এর মোহাম্মদ বদরুর রেজা ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের জুবায়ের আহমেদ এবং মনোনয়নপত্রে স্বাক্ষর না থাকায় হবিগঞ্জ-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী জাকির হোসেনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। 

গোপালগঞ্জ- ১ আসন থেকে বাদ পড়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শামছুল আলম খান চৌধুরী, ৩ আসন থেকে বাদ পড়েছেন বিএনপির প্রার্থী এস এম জিলানী এবং একই আসন থেকে জাতীয় পার্টির এ জেড অপু শেখের মনোনয়ন দেওয়া হয়নি।

কুষ্টিয়া-১(দৌলতপুর) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র না থাকায় সাবেক সংসদ সদস্য আফাজ উদ্দিন আহমেদের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। এছাড়া একই আসন থেকে ঋণ খেলাপীর দায়ে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের (বাদল গ্রুপ) প্রার্থী রেজাউল হক ও আয়কর রির্টান দাখিল না করায় মুসলীম লীগ প্রার্থী আব্দুল খালেক সরকার এর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। অন্যদিকে কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর-ভেড়ামারা) আসনে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা না দেয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী উপজেলা জামায়াতের আমির ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যন আব্দুল গফুর ও বশির আহমেদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়

এছাড়া কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র না পাওয়ায় সাবেক বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুর রউফের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। একই আসন থেকে ঋণ খেলাপীর দায়ে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির প্রার্থী মেহেদী হাসান, জাকের পার্টির তসির উদ্দিন ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ (ইনু) প্রার্থী রোকনুজ্জামান রোকনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

যশোর থেকে মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থীদের মধ্যে আছেন, সাজেদুর রহমান- জাকের পার্টি ,আজীজুর রহমান - স্বতন্ত্র (জামায়াত), হাজী মহিদুল ইসলাম- জাকের পার্টি, এবিএম আহসানুল হক-স্বতন্ত্র, মুহাদ্দিস শহিদুল ইসলাম ইনসাফী- ইসলামী ঐক্যজোট, সাবিরা সুলতানা-বিএনপি, আব্দুল্লাহ আল মাসউদ- বিএনএফ, ফিরোজ শাহ- জাপা, মো. আছাদুজ্জামান-গণফোরাম, শাহীন চাকলাদার- আ.লীগ, মফিজুল আলম - ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, প্রশান্ত বিশ্বাস-বিএনএফ, সৈয়দ বিপ্লব আজাদ- জেএসডি, মারুফ হাসান কাজল- বিকল্পধারা বাংলাদেশ, লিটন মোল্যা- জাকের পার্টি, নাজিমুদ্দিন আল আজাদ-বিকল্পধারা বাংলাদেশ (যুক্তফ্রন্ট), মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ- ন্যাশনাল পিপলস পার্টি, ইবাদুল ইসলাম খালাসি- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, রবিউল ইসলাম- জাকের পার্টি, মো. মুছা- বিএনপি, নিজামুদ্দিন অমিত-জাগপা, কামরুল হাসান বারী-স্বতন্ত্র, সাইদুজ্জামান- জাকের পার্টি, নূরুল ইসলাম - স্বতন্ত্র, প্রশান্ত বিশ্বাস-বিএনএফ



বাতিল হওয়া প্রার্থীর মধ্যে নাটোর-২ (সদর) আসনে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু রয়েছেন। নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে সাম্যবাদী দলের বীরেন সাহার মনোনয়ন বাতিল করা হয়। এ ছাড়া নাটোর-৪ (বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুর) আসনে মুসলীম লীগের শান্তি রিবেরু, জাতীয় পার্টির আলাউদ্দিন মৃধা, জাসদের জিএম আলম ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী জামায়াতের দেলোয়ার হোসেনের মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণা করা হয়।

এবারের নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ৩০৫৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

বিস্তারিত আসছে... 

About

Popular Links