Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পঞ্চগড়ে নৌকাডুবির ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩২

এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে নদীতীরে অপেক্ষমাণ স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:২৬ পিএম

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার করতোয়া নদীতে নৌকাডুবির ঘটনায় আরও সাতজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। এ নিয়ে সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত মোট ২৯ জনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে।

পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক শেখ মো. মাহবুবুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে করতোয়া ও  দিনাজপুরের খানসামার আত্রাই নদীতে এসব মরদেহ ভেসে ওঠে। পরে স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে জানালে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার করা মরদেহগুলোর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলের তিনটি ইউনিট সোমবার সকাল থেকে ঘটনাস্থলের আশেপাশে নদীতে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। নদীর ওই অংশে পানির তীব্র স্রোত লক্ষ করা গেছে।

এখনও অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন বলে নদীতীরে অপেক্ষমাণ স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে।

নৌকাডুবিতে এখন পর্যন্ত যেসব মৃতদের পরিচয় পাওয়া গেছে, তারা হলেন- শ্যামলী রানী (১৪), লক্ষী রানী (২৫), অমল চন্দ্র (৩৫), শোভা রানী (২৭), দীপঙ্কর (৩), পিয়ন্ত (২.৫), রুপালী ওরফে খুকি রানী (৩৫), প্রমিলা রানী (৫৫), ধনবালা (৬০), সুনিতা রানী (৬০), ফাল্গুনী (৪৫), প্রমিলা দেবী (৭০), জ্যোতিশ চন্দ্র (৫৫), তারা রানী (২৫), সনেকা রানী (৬০), সফলতা রানী (৪০), হাশেম আলী (৭০), বিলাস চন্দ্র (৪৫), শ্যfমলী রানী ওরফে শিমুলি (৩৫),  উষশী (৮), তনুশ্রী (৫), শ্রেয়শী, প্রিয়ন্তী (৮), সনেকা রানী (৬০) ও ব্রজেন্দ্রনাথ (৫৫)। তিনজনের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এর আগে রবিবার পঞ্চগড়ের করতোয়া নদীতে নৌকা ডুবে শিশু, নারীসহ ২৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। বোদা উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়নের আউলিয়ার ঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মহালয়া উপলক্ষে জেলার বোদা, পাঁচপীর, মাড়েয়া, ব্যাঙহারি এলাকার সনাতন ধর্মাবলম্বীরা নৌকায় করে বোদার বড়শশী ইউনিয়নের বদেশ্বরী মন্দিরে (নদীর অপর পাড়ে) যাচ্ছিলেন। অতিরিক্ত যাত্রী থাকায় নদীর মাঝ পথে উল্টে যায় নৌকাটি। কিছু মানুষ সাঁতরে নদীর তীরে আসলেও ২৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট দিপঙ্কর রায়কে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সবগুলো মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে মৃতদের সৎকারে ২০ হাজার এবং আহতদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা জানিয়েঝে জেলা প্রশাসন।

নৌকাডুবিতে হতাহতের বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য জরুরি তথ্যকেন্দ্র খোলা হয়েছে ৬ নম্বর মাড়েয়া বামনহাট ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে।

About

Popular Links