Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পদ্মা সেতু থেকে গ্রেপ্তার সন্দেহভাজন ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু

আটক ভারতীয় নাগরিক তারেক বাইন শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন

আপডেট : ৩১ অক্টোবর ২০২২, ১১:১৮ পিএম

পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্ত থেকে সন্দেহজনক গতিবিধির কারণে আটক ভারতীয় নাগরিক তারক বাইন (৬০) গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে মারা গেছেন।

রবিবার (৩০ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ‍হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তারক বাইন শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। সোমবার রাত ৮টার দিকে তাকে উচ্চরক্তচাপজনিত সমস্যার কারণে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন- পদ্মা সেতু এলাকায় আটক ভারতীয় নাগরিক ৬ দিনের রিমান্ডে

ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানিয়েছেন হাসপাতালের সহকারী পরিচালক অসিত কুমার মল্লিক।

মৃত তারক বাইন ভারতের পশ্চিম বিহার জেলার সোনার গ্রাম এলাকার বাসিন্দা। তাকে ১৯৫২ সালের “দ্য কন্ট্রোল অব এন্টি অ্যাক্ট”- এর ৪ ধারায় আটক করা হয়।

আরও পড়ুন- ভারতীয় নাগরিককে মারধর-ছিনতাইয়ের অভিযোগে ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

জেল সুপার মো. ওবায়দুর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, শরিয়তপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে তাকে ২০২১ সালের ৯ জুলাই জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। এরপর ২০ জানুয়ারি তাকে আনা হয় গোপালগঞ্জ জেলা কারাগারে। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে ওইদিনই রাত ৮টার দিকে তাকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়।

তারক বাইনের মরদেহ গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর কারা কর্তৃপক্ষ ভারতীয় হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে বলে জানা গেছে।

About

Popular Links