Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বন্ধুর হবু স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ইমাম-মাদ্রাসার শিক্ষক-কলেজছাত্র গ্রেপ্তার

ধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ করেন ওই তিনজন

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৯:৫৮ এএম

বরিশালে বন্ধুর হবু স্ত্রীকে বাসায় ডেকে গণধর্ষণের অভিযোগে মসজিদের ইমাম, মাদ্রাসার শিক্ষক ও এক কলেজছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এর আগে এই ঘটনায় রবিবার রাতে এয়ারপোর্ট থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী নারী।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-বাবুগঞ্জ উপজেলার গাঙ্গুলি বাড়ি মোড় এলাকার একটি মসজিদের ইমাম আবু সাইম হাওলাদার, নগরীর রূপাতলী উকিলবাড়ি সড়কের একটি মাদ্রাসার শিক্ষক আবিদ হাসান ওরফে রাজু এবং সরকারি বিএম কলেজের শিক্ষার্থী হৃদয় ফকির।

পুলিশ জানায়, বাবুগঞ্জ উপজেলার এক মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষা দেন ভুক্তভোগী নারী। তার সঙ্গে একই উপজেলার এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে সম্প্রতি তার সঙ্গে ওই যুবকের পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয়। ওই যুবকের সঙ্গে বন্ধুত্ব রয়েছে গ্রেপ্তারকৃত তিন ব্যক্তির। বিয়ে ঠিক হওয়ার বিষয়টি বন্ধুরা জানতো। গ্রেপ্তারকৃত তিনজন একই বাসায় ভাড়া থাকে। পরিচয়ের সূত্রে বাসায় ডেকে ওই নারীকে ধর্ষণ করে তারা।

মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে এয়ারপোর্ট থানার ওসি হেলাল উদ্দিন বলেন, “গত ২০ আগস্ট রাতে হৃদয় ফকির ওই নারীর মোবাইলে কল দিয়ে জানায়, তার হবু স্বামী অন্য নারীদের সঙ্গে মেলামেশা করে। তখন পাশে থেকে অপর দুই বন্ধু জানায়, ২৭ আগস্ট নগরীর একটি বাসায় তার হবু স্বামী অন্য মেয়েকে নিয়ে যাবে। হাতেনাতে ধরার জন্য ওই নারীকে সেখানে যেতে বলে। ওই দিন সকাল ১০টার দিকে ওই বাসায় গেলে তাকে ধর্ষণ করে তারা। এ সময় মোবাইলে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করা হয়।”'

ওসি আরও বলেন, “ধর্ষণের পর ওই নারী অসুস্থ হয়ে পড়লে ভিডিও ফেসুবকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এতে বাধ্য হয়ে চিকিৎসা না নিয়ে বাড়ি চলে যান ভুক্তভোগী নারী। এরপর ধর্ষণের ভিডিওর কথা বলে তাকে ব্ল্যাকমেইল করে আরও পাঁচবার দলবেঁধে ধর্ষণ করে তারা। পরে ভিডিও ভাইরালের হুমকি দিয়ে টাকা দাবি করে। একপর্যায়ে ধর্ষণের ভিডিও হবু বরের বাবাকে দেখায়। বিষয়টি জানতে পেরে হবু স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে থানায় যান ওই যুবক। এরপর তিন বন্ধুর বিরুদ্ধে মামলা করেন ভুক্তভোগী। মামলার পর অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।”

About

Popular Links