Friday, June 14, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাকায় দূতাবাস খুলবে আর্জেন্টিনা

মার্কোপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘লিওনেল মেসি ও আর্জেন্টিনা দলের প্রতি বাংলাদেশের প্রশ্নাতীত সমর্থনের কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ’

আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২৫ পিএম

দক্ষিণ আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো ক্যাফিয়েরো বাংলাদেশে দূতাবাস খোলার ঘোষণা দিয়েছেন।

রবিবার (১১ ডিসেম্বর) দক্ষিণ আটলান্টিকের একটি সংবাদ সংস্থা মেরকোপ্রেস এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “কাতার ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২-এ খেলা লিওনেল মেসি ও আর্জেন্টিনা দলের প্রতি বাংলাদেশের প্রশ্নাতীত সমর্থনের কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।”

বাংলাদেশে সবসময়ই আর্জেন্টিনার ভক্ত ছিল, কিন্তু এই কাতার বিশ্বকাপের সময় তারা তাদের বিপুল আবেগ প্রদর্শন করে বিশ্বব্যাপী নজর কেড়েছে। এটি শুরু হয়েছিল, যখন উচ্ছ্বসিত বাংলাদেশি সমর্থকদের মেক্সিকোর বিরুদ্ধে মেসির গোলে উল্লাস করার একটি ভিডিও ফিফার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা হয়েছিল।


ওই পোস্টটি দ্রুত ভাইরাল হয়ে যায় এবং ইন্টারনেটে ট্রেন্ডিংয়ে পরিণত হয়। আর্জেন্টিনার মিডিয়াও তা কভার করেছে। পরে, আর্জেন্টিনার জাতীয় ফুটবল দলের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে নিম্নলিখিত বার্তাসহ বাংলাদেশ সম্পর্কে টুইট করা হয়- “থ্যাংক ইউ ফর সাপোর্টিং আওয়ার টিম!!! দে আর ক্রেজি লাইক আস।” (আমাদের দলকে সমর্থন করার জন্য তোমাদের ধন্যবাদ!! ওরাও আমাদের মতো পাগল!)


আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সান্তিয়াগো ক্যাফিয়েরোর সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন/ সংগৃহীত


সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বাংলাদেশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের সঙ্গে যোগ দেন আর্জেন্টাইনরা। আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের প্রতি বাংলাদেশের অন্তহীন ভালোবাসার প্রতিদান হিসেবে, বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জন্য একটি আর্জেন্টিনা ফ্যান গ্রুপ তৈরি করা হয় ফেসবুকে।

আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাফিয়েরোকে উদ্ধৃত করে মার্কোপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, “ভারতে অনুষ্ঠিতব্য জি-২০ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের পর প্রস্তাব চূড়ান্ত করতে তিনি ২০২৩ সালে বাংলাদেশ সফর করবেন।”


এই বছরের আগস্টে, ক্যাফিরো বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে দেখা করেন। এসময় তারা দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতার প্রচার করতে এবং “বাণিজ্য বৃদ্ধির ব্যাপক সম্ভাবনা” নিয়ে একমত হন।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, “আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে যে, তারা দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক অন্বেষণ করতে চায়। তারা বাংলাদেশে একটি দূতাবাস খোলার মাধ্যমে বাণিজ্যে বৈচিত্র্য আনতে চায়।”

২০২১ সালে, আর্জেন্টিনা বাংলাদেশে ৮৭৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছিল। যার বেশিরভাগ গম, ভুট্টা ও সয়াবিন জাতীয়। যা একটি রেকর্ড, যার ফলে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির ৮৬২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাণিজ্য উদ্বৃত্ত হয়েছে।

জুলাই মাসে আর্জেন্টিনা বাংলাদেশকে জানায় যে, দক্ষিণ আমেরিকার এই দেশটি বাংলাদেশে সয়াবিন, গরুর মাংস ও সার রপ্তানির জন্য প্রস্তুত।

About

Popular Links