Sunday, June 16, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আইনমন্ত্রী: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন থাকবে, প্রয়োজনে সংশোধন

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘সবদিক পর্যালোচনা করে যদি দেখা যায়, কিছু জায়গায় স্পষ্টতার জন্য কিছু করার দরকার হয়, তাহলে সংশোধন বা পরিবর্তন করতে আমরা রাজি আছি’

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২৩, ০৩:৪৫ পিএম

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বলবৎ থাকবে। তবে কিছু জায়গায় স্পষ্টতার জন্য সংশোধন বা পরিবর্তন করতে রাজি আছে সরকার। এ বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, “ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন সাইবার অপরাধ বন্ধ করার জন্য করা হয়েছে। সাইবার অপরাধ বন্ধ করার জন্য এটি থাকবে।

বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত আট রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের তিনি এই এসব কথা জানান। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন, সুইডেন, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ড এবং জার্মানির রাষ্ট্রদূত আইনমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন।

মন্ত্রী বলেন, “আমরা টেকনিক্যাল নোট পেয়েছি এবং সবদিক পর্যালোচনা করে যদি দেখা যায় কিছু জায়গায় স্পষ্টতার জন্য কিছু করার দরকার হয়, তাহলে সংশোধন বা পরিবর্তন করতে আমরা রাজি আছি।”

সরকার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, “জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের কাছ থেকে এ বিষয়ে আমরা একটি টেকনিক্যাল নোট পেয়েছি। সেটি পর্যালোচনা করছি। এ বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেবো। আমি তাদের জানিয়েছি ১৪ মার্চ সুশীল সমাজের ১০জন প্রতিনিধির সঙ্গে এই আইন নিয়ে বৈঠক করবো।”

সরকার অ্যান্টি-ডিসক্রিমিনেশন (বৈষম্যবিরোধী) আইন তৈরি করতে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, “এটি নিয়ে ইইউ সাধুবাদ জানিয়েছে। তারা জানতে চেয়েছে এটি কবে পাস হবে। আমি তাদের বলেছি মাঝখানে জাতীয় সংসদের একটি সেশন হবে। কিন্তু সেখানে বিল পাস করার মতো সময় হবে না। আমার মনে হয় এটি বাজেট সেশনের সময়ে পাস হবে।”

ডাটা প্রটেকশন আইন নিয়ে মন্ত্রী বলেন, “ডাটা প্রটেকশন আইন নিয়ে স্টেকহোল্ডার সঙ্গে আলোচনা হয়েছে এবং পরে আবার আলোচনা হবে। ডাটা প্রটেকশন আইন উপাত্ত নিয়ন্ত্রণের জন্য করা হচ্ছে না। এটি উপাত্ত সুরক্ষার জন্য করা হচ্ছে। আলোচনার মধ্যে তারা বলেছেন যে, স্টেকহোল্ডার সঙ্গে বৈঠকের সময়ে আন্তর্জাতিক কোম্পানির প্রতিনিধিরা থাকতে পারবে কি-না। আমি বলেছি আন্তর্জাতিক কোম্পানির প্রতিনিধিরা থাকতে পারবে।”

About

Popular Links