Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৭০ বছর বয়সে এসে বিয়ে করলেন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক

জীবনের মূল্যবান সময় তিনি শিক্ষকতা, ভাইবোন ও সমাজসেবায় ব্যয় করেছেন। তাকে বিয়ের কথা বলা হলেও তিনি কখনো বিয়ে করতে রাজি হচ্ছিলেন না

আপডেট : ২৩ মার্চ ২০২৩, ১১:০১ পিএম

৭০ বছর বয়সে এসে বিয়ে করলেন বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার জিগিরমোল্লা গ্রামের আলহাজ হাওলাদার শওকত আলী। পাশের উপজেলা মোংলার শাহেদা বেগম নাজুকে (৩৫) বিয়ে করেন তিনি।

শনিবার (১৮ মার্চ) জাঁকজমকভাবে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন তারা। ১০ লাখ এক টাকা দেনমোহরে নগদ পাঁচ লাখ টাকা উসুলে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও দুই পরিবারের লোকজনের উপস্থিতিতে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বরের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শওকত আলী দীর্ঘদিন ধরে বাগেরহাটের রামপাল সরকারি কলেজে শিক্ষকতা করতেন। একসময় পরিবারে হাল ধরতে এবং ভাই বোনদের মানুষ করতে গিয়ে বিয়ে করেননি। জীবনের মূল্যবান সময় তিনি শিক্ষকতা, ভাইবোন ও সমাজসেবায় ব্যয় করেছেন। তাকে বিয়ের কথা বলা হলেও তিনি কখনো বিয়ে করতে রাজি হচ্ছিলেন না। তিনি সারা জীবন চিরকুমার থাকবেন বলে জানাতেন।

তবে অবসরে যাওয়ার পর বর্তমানে অনেকটা একাকীত্ব বোধ করছিলেন।

বরের নিকটাত্মীয় আব্দুল হালিম খোকন বলেন, “তিনি আমাদের বড় ভাই, আমরা তার কাছে মানুষ হয়েছি, সারাটা জীবন সে আমাদের সুখ-দুঃখে বটবৃক্ষের মতো আগলে রেখেছেন। বর্তমানে আমরা নিজেদের কর্ম ও ব্যবসা নিয়ে ব্যস্ত থাকি, যার কারণে ওনাকে সময় দিতে পারি না। তিনিও একাকীত্ব বোধ করছেন। তার একাকীত্ব দূর করতে ও দেখভাল করতে তার একজন সঙ্গিনী খুবই দরকার। তাই আমরা তাকে বিয়ের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে তিনি একপর্যায়ে রাজি হন।”

আবদুল হালিম আরও বলেন, “কনের আগের সংসারের মেয়েটার দায়িত্ব আমার বড় ভাই নিয়েছেন। তারা বর্তমানে শান্তিতে সংসার করছেন। পরিবারসহ নতুন বর এবং কনে আগামীতে হজে যাবেন, আপনাদের মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে নতুন দম্পতির জন্য দোয়া কামনা করছি।”

About

Popular Links