Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঈদের দিনে সড়কে ঝরলো যত প্রাণ

ঈদের দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের বেশিরভাগই মোটরসাইকেল আরোহী এবং অপেক্ষাকৃত কম বয়সী

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২৩, ০৯:৫৮ পিএম

ঈদ উপলক্ষে আনন্দে মেতেছে সারাদেশ। যার যার মতো সবাই আনন্দে মেতেছেন। তবে এই আনন্দের মাঝে কোথাও কোথাও বিষাদ হয়ে দেখা দিয়েছে সড়ক দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যু। ঈদের দিন দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতের সংখ্যাও উদ্বেগজনক। শনিবার (২২ এপ্রিল) ঈদ-উল-ফিতরের দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের বেশিরভাগই মোটরসাইকেল আরোহী এবং অপেক্ষাকৃত কম বয়সী। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সারাদেশে ঈদের দিনে ১১ জন মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যুর খবর পাওযা গেছে।

নেত্রকোণা

নেত্রকোণার কলমাকান্দা উপজেলায় দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে তিন কিশোর নিহত হয়েছে। এ সময় আরও দুই কিশোর আহত হয়েছে। শনিবার দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের কোনাপাড়ার সীমান্ত সড়কের বৌবাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো-উপজেলার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের গোয়াতলা গ্রামের শাহজাহানের ছেলে আবুবকর (১৫), একই গ্রামের মন্নাছ মিয়ার ছেলে মাসুম মিয়া (১৬) ও খারনৈ ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের ইমান আলীর ছেলে সুমন মিয়া (১৫)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ঈদের দিন ঘুরতে গোয়াতলা গ্রাম থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে সীমান্ত এলাকায় যাচ্ছিল আবুবকর ও মাসুম। বৌবাজার এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেলের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই আবুবকর ও মাসুম নিহত হয়। এ সময় অপর মোটরসাইকেলে থাকা তিন আরোহী গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সুমন মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

বগুড়া

বগুড়ার নন্দীগ্রামে মহাসড়কে পৃথক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত ও এক গৃহবধুসহ চারজন আহত হয়েছেন।  হাইওয়ে পুলিশ কুন্দারহাট ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আবুল হাসনাত জানান, বিকেলে উপজেলার কাথম বেড়াগাড়ি এলাকায় বেপরোয়া গতিতে চলা দুটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ও চাকলমা এলাকায় মোটরসাইকেল একটি সিএনজি অটো রিকশায় ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার দামগাড়া গ্রামের নান্টু মিয়ার ছেলে হোটেল ব্যবসায়ী ইমরান হোসেন (২৮), গাইবান্ধা সদরের পূর্বপাড়ার গোলাম হোসেনের ছেলে আবিদার হোসেন (২৪) এবং নন্দীগ্রামের কল্যাণনগর এলাকার ইয়াকুব আলীর ছেলে বুলবুল হোসেন (২৫)।

হাইওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আবিদার হোসেন মোটরসাইকেলে এক বন্ধুকে নিয়ে নন্দীগ্রাম থেকে বগুড়ার দিকে যাচ্ছিলেন। অপরদিকে এমরান হোসেন তার স্ত্রী মারুফা ও ভাতিজা নিয়ে কুন্দারহাট থেকে নন্দীগ্রাম সদরের দিকে যাচ্ছিলেন। বেপরোয়া গতিতে আসা দুটি মোটরসাইকেল কাথম বেড়াগাড়ি এলাকায় বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে পৌঁছালে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই আবিদার হোসেন ও ইমরান হোসেন মারা যান। আহত হন ইমরানের স্ত্রী ও ভাতিজা এবং আবিদারের বন্ধু। হাইওয়ে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

অপরদিকে বিকেল ৫টার দিকে বুলবুল হোসেন ও তার বন্ধু মানিকমোটরসাইকেলে নন্দীগ্রামের কাথম এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। বেপরোয়া গতিতে তারা কাথম মোড়ে পৌঁছালে একটি সিএনজি চালিত অটো রিকশার সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। আহত বুলবুল ও মানিককে উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে নেওয়া হলে  চিকিৎসক বুলবুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা

রাজধানীর রামপুরায় বাসের চাপায় মেহেদী হাসান (১৭) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে তার বন্ধু মোটরসাইকেল চালক শাকিল। শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে টেলিভিশন সেন্টারের বিপরীত পাশের সড়কে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

গাজীপুর

গাজীপুরের শ্রীপুরে ঈদের দিন বন্ধুর সঙ্গে মোটরসাইকেলে ঘুরতে বের হয়ে দুর্ঘটনায় একজন নিহত ও একজন আহত হয়েছে। শনিবার দুপুরে শ্রীপুর-কালিয়াকৈর সড়কের ফুলবাড়িয়ায় (আতাব আলীর মোড়) এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহত মোটরসাইকেল আরোহী জীবন হোসেন (২২) গাজীপুরের জয়দেবপুর থানার পিরুজালী গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে। 

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অমল জন্দ্র সরাকার স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, জীবন হোসেন দুপুরে তার বন্ধুর মোটরসাইকেলযোগে জয়দেবপুর থানার হোতাপাড়া থেকে কালিয়াকৈরের ফুলবাড়িয়ার উদ্দেশে ঘুরতে বের হন। আতাব আলীর মোড় এলাকায় পৌঁছালে দ্রুতিগতির মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে মোটরসাইকেলসহ দুই বন্ধু ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে শ্রীপুরের মাওনা এলাকার একটি ক্লিনিকে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় জীবনকে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফরিদপুর

ঈদের দিন মোটরসাইকেল নিয়ে তিন বন্ধু ঘুরতে বের হয়ে বাসচাপায় এক বন্ধু নিহত হয়েছেন। বাকি দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নিহত ওই তরুণের নাম জুবায়েত হাসান (২০)। তিনি মোটরসাইকেলের চালক ছিলেন।

জুবায়েত ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত শহিদুল ইসলামের ছেলে। আহত দুজন হলেন- একই গ্রামের রনি কাজী (২২) ও সিফাত শরীফ (২১)। তারা একই এলাকার বাসিন্দা ও বন্ধু বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শনিবার বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা পৌরসভার বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিউটিটের ভাঙ্গা আঞ্চলিক কার্যালয়ের সামনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

যশোর

যশোরের বাঘারপাড়ায় ঈদের নামাজ শেষে ঘুরতে বেরিয়ে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আল-আমিন (১৮) নামের এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। ঈদের দিন দুপুরে উপজেলার ছাতিয়ানতলা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আল-আমিন একই উপজেলার দোহাকুলা বীরডাঙ্গাপাড়া গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য ফরিদুল কবিরের ছেলে। তিনি বাঘারপাড়া ডিগ্রি কলেজ থেকে এ বছর এইচএসসি পাস করেন।

নিহতের পরিবার জানায়, শবিবার সকালে আল-আমিন বাঘারপাড়া কেন্দ্রীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করে। এরপর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বন্ধুদের সঙ্গে একটি পালসার মোটরসাইকেলে করে যশোরে ঘোরার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। 

পথিমধ্যে ছাতিয়ানতলা বাজারে পৌঁছালে বিপরীতমুখী একটি ইজিবাইকের সঙ্গে আল-আমিনের দ্রুত গতির পালসার মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে আল-আমিন মাথায় গুরুতর আঘাত পান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মিথুন কুমার দে আল-আমিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

জয়পুরহাট

জয়পুরহাটের কালাইয়ে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বিপ্লব হোসেন (১৭) নামের এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কালাই উপজেলার জিন্দারপুর বুড়িপুকুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত স্কুলছাত্র বিপ্লব হোসেন কালাই উপজেলার জিন্দারপুর হাজিপুর গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে। বিপ্লব দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন।

নিহতের স্বজন ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে মোটরসাইকেল নিয়ে বিপ্লব বাড়ি থেকে বের হন। দ্রুত গতিতে মোটরসাইকেল চালিয়ে আসার পথে জিন্দারপুর ইউনিয়নের বুড়িপুকুর নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। আহত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান তিনি।

About

Popular Links