Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ট্রলারে দশ লাশ, দুই আসামির স্বীকারোক্তি

দুই আসামি আদালতে জানিয়েছেন, ৯ এপ্রিল সাগরে একটি ট্রলারকে ঘিরে ৭-৮টি ট্রলারের লোকজন ডাকাত-ডাকাত বলে মারধর করছিলেন

আপডেট : ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ০৯:২১ পিএম

কক্সবাজারের নাজিরারটেক উপকূলে ট্রলার থেকে ১০ লাশ উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের করা মামলার দুই আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

রবিবার (৩০ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কক্সবাজার সদরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্রীজ্ঞান তঞ্চজ্ঞার আদালতে হাজির করা হলে তারা ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

জবানবন্দি দেওয়া আসামিরা হলেন- বাঁশখালীর ফজল কাদের মাঝি ও আবু তৈয়ব মাঝি। তারা তিন দিনের রিমান্ডে ছিলেন। রিমান্ড শেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কক্সবাজার সদর থানার পরিদর্শক দুর্জয় বিশ্বাস দুইজনকে আদালতে হাজির করেন।

পুলিশ পরিদর্শক দুর্জয় জানান, রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্য আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিতে রাজি হয়েছেন দুইজন। এর পরিপ্রেক্ষিতে কক্সবাজার সদরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্রীজ্ঞান তঞ্চংজ্ঞ্যার কাছে জবানবন্দি দেন।

তিনি আরও জানান, রিমান্ডে এই দুই আসামি স্বীকার করেছেন, ৯ এপ্রিল সাগরে একটি ট্রলারকে (সামশু মাঝির) ঘিরে ৭-৮টি ট্রলারের লোকজন ডাকাত-ডাকাত বলে মারধর করছেন। যারা মারধর করছিলেন, তাদের বেশিরভাগই মহেশখালীর মানুষ। আর তার দুজন বাঁশখালীর বাসিন্দা। সে কারণে তারা ঘটনাস্থল থেকে বাঁশখালী চলে যান।

এদিকে, এ মামলায় ২৫ এপ্রিল চকরিয়া উপজেলার বদরখালী এলাকা থেকে গিয়াস উদ্দিন মুনির (৩২) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মুনির বদরখালী এলাকার বাসিন্দা।

ঢাকা ট্রিবিউন

রবিবার মুনিরের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন কক্সবাজার সদরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্রীজ্ঞান তঞ্চংজ্ঞ্যা। তাকে যেকোনো সময় রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেওয়া হবে বলে জানান তদন্ত কর্মকর্তা।

পুলিশ পরিদর্শক দুর্জয় বিশ্বাস জানান, আদালতের আদেশে মামলার এজাহারভুক্ত এক নম্বর আসামি মাতারবাড়ি এলাকার ট্রলার মালিক বাইট্টা কামাল ও চার নম্বর আসামি ট্রলার মাঝি করিম সিকদারের পাঁচ দিনের রিমান্ড রবিবার শেষ হচ্ছে। সোমবার যেকোনো সময় ওই দুইজনকেও আদালতে পাঠানো হবে।

এই দুই আসামির কাছে কী তথ্য পাওয়া গেছে তা জানাতেও অপারগতা প্রকাশ করেছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

গত ২৩ এপ্রিল গুরা মিয়া নামের এক ব্যক্তির মালিকানাধীন একটি ট্রলার সাগরে ভাসতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। ট্রলারটি নাজিরারটেক উপকূলে নিয়ে এলে সেটির হিমঘরে হাত-পা বাঁধা ১০ জনের লাশ পাওয়া যায়। উদ্ধার হওয়া ১০ জনের মধ্যে ছয়জনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মর্গে রয়ে গেছে আরও চারজনের লাশ। ডিএনএ পরীক্ষার পর নিশ্চিত হওয়া যাবে তাদের পরিচয়।

২৫ এপ্রিল গ্রেপ্তারের পর বাঁশখালীর কুদুকখালী এলাকার বাসিন্দা ফজল কাদের মাঝি (৩০) ও আবু তৈয়ব মাঝিকে (৩২) পুলিশের হস্তান্তর করে র‍্যাব। আদালতে নির্দেশে ২৭ এপ্রিল তাদের তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। এর আগে বাইট্টা কামাল ও করিম সিকদারকে আদালতের মাধ্যমে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। সোমবার পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে তাদের আদালতে হাজির করার কথা রয়েছে।

About

Popular Links