Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে নারী চিকিৎসকের রহস্যজনক মৃত্যু, সন্দেহের তালিকায় চার বাংলাদেশি

ঘটনার দিন সন্ধ্যায় গ্রেপ্তারকৃত কৌশিক তার চারজন বাংলাদেশি বন্ধুকে ব্যারাকপুরের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ঘুরিয়ে দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন

আপডেট : ২৬ জুন ২০২৩, ১২:২৫ পিএম

ভারতের কলকাতা সংলগ্ন ব্যারাকপুর ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় এক ভারতীয় চিকিৎসকের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশের সন্দেহের তালিকায় চার বাংলাদেশি নাগরিক নাম উঠে এসেছে।

গত সপ্তাহে সেনা ছাউনির অফিসার্স কোয়ার্টার্স “ম্যান্ডেলা হাউস” এর একটি ফ্ল্যাট থেকে চিকিৎসক ও লেখিকা প্রজ্ঞাদীপার (৩৭) মরদেহ উদ্ধার হয়। তার শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। স্বজনেরা বলছেন, এই মৃত্যুর ঘটনা রহস্যজনক। 

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রজ্ঞাদীপার বন্ধু সেনা চিকিৎসক লেফটেন্যান্ট কর্নেল কৌশিক সর্বাধিকারীকে। এছাড়া এই মৃত্যুর ঘটনায় চার বাংলাদেশির জড়িয়ে থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম এখন প্রকাশ করেনি ভারতীয় পুলিশ। 

পুলিশের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার বলছে, জিজ্ঞাসাবাদে ডাক্তার কৌশিক সর্বাধিকারী জানান, ঘটনার দিন সন্ধ্যায় কৌশিক তার চারজন বাংলাদেশি বন্ধুকে কলকাতা সংলগ্ন ব্যারাকপুরের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান ঘুরিয়ে দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন। বাংলাদেশি ওই বন্ধুদের নিয়ে সেদিন রাতে ঘরে মদ্যপানের আসর বসেছিল। ওই ঘর থেকেই পরেরদিন প্রজ্ঞাদীপার মরদেহ উদ্ধার হয়। 

পুলিশ বলছে, ওই চারজনের পরিচয় জানিয়েছেন কৌশিক। তারা বাংলাদেশ থেকে এসে কেন্দ্রীয় মৎস্য দপ্তরের সরকারি গেস্ট হাউসে উঠেছিলেন। বাংলাদেশি ওই চার যুবকের সঙ্গে কৌশিকের সম্পর্কের বিষয়টি এখনো তদন্তাধীন। 

জানা গেছে, ব্যারাকপুর সেনা ক্যান্টনমেন্টের ইতিহাস নিয়ে বই লেখার কাজ শুরু করেছিলেন প্রজ্ঞাদীপা। তাতে সাহায্য করছিলেন কৌশিক নিজেও। মঙ্গল পাণ্ডে থেকে সিপাহী বিদ্রোহ, ইতিহাসের সমস্ত দলিল তাতে লিপিবদ্ধ থাকত। এ জন্য তথ্য সংগ্রহ করতে দু'জনেই একাধিক জায়গায় গিয়েছেন। এই বই লেখার কাজকর্মের সঙ্গে বাংলাদেশের ওই চারজন কোনোভাবে জড়িত কি-না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

About

Popular Links