Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নারায়ণগঞ্জে বকেয়া বেতনের দাবিতে পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বিক্ষোভে পুলিশের লাঠিচার্জে আহত শ্রমিক মোক্তার হোসেন বলেন, ঈদের সময় এলেই আমাদের রাস্তায় নামতে হয়। কেন তারা বোঝে না আমরা শ্রমিকরা যে কাজ করি, তার বেতন পরিশোধ করতে হয়’

আপডেট : ২১ এপ্রিল ২০২২, ০৫:৪৫ পিএম

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে আদমজী ইপিজেডের বেকা গার্মেন্ট এন্ড টেক্সটাইলের শ্রমিকরা। 

শনিবার (২১ এপ্রিল) সকাল ১১ টার দিকে শিমরাইল-আদমজী সড়ক অবরোধ করে শতাধিক শ্রমিক। এতে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় এবং বিপাকে পড়ে সাধারণ মানুষ।

যান চলাচল বন্ধ থাকার প্রায় এক ঘণ্টা পর শিল্পাঞ্চল পুলিশ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ জলকামান নিক্ষেপ এবং লাঠিচার্জ করে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। 

পুলিশ ও শ্রমিক সূত্রে জানা যায়, সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেড এলাকায় অবস্থিত বেকা গার্মেন্টসে অ্যান্ড টেক্সটাইলসে প্রায় ৯শ শ্রমিক কাজ করেন। শ্রমিকদের কারও দুই মাস আবার কারও তিন মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। ১৮ এপ্রিল বেতন পরিশোধের কথা থাকলেও কারখানা কর্তৃপক্ষ তা পরিশোধ করেনি। শনিবার সকালে শ্রমিকরা কারখানায় গিয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে বেতন পরিশোধের কোনো আশ্বাস না পেয়ে বেলা ১১ টার দিকে সড়ক অবরোধ করেন। 

বিক্ষোভরত শ্রমিকরা বলেন, ‘‘গত সপ্তাহে বেতন পরিশোধের কথা থাকলেও তা দেয়া হয়নি। বেতনের বিষয়ে কথা বলতে গেলেই গালাগাল করে। চাকরি থেকে ছাঁটাইয়ের হুমকি দেয়। কিন্তু আমরা শ্রমিকরা কোথায় যাব। সামনে ঈদ, পরিবার পরিজন নিয়ে কীভাবে চলব।’’ 

শ্রমিক রানী আক্তার বলেন, “তিন মাস যাবত বেতন নাই, রোজা কোনোরকম পার করেছি। বাড়িওয়ালা ভাড়ার জন্য চাপ দিচ্ছে। ঈদে বাড়িতে কীভাবে যাব। বাবা-মায়ের সামনে কীভাবে দাঁড়াব।”

শ্রমিক মহসিন বলেন, “ঈদে ছেলেমেয়ে নতুন জামাকাপড় চাইছে। কিভাবে দেব? গত দুই মাস যাবত ধার দেনা করে কোনোরকম খাবারের পয়সা যোগাড় করতে পারছি। এ মাসেও যদি বেতন না পাই তাহলে চলবো কেমনে। তাই বাধ্য হয়ে এসব করতে হচ্ছে।”

পুলিশের লাঠিচার্জে আহত শ্রমিক মোক্তার হোসেন বলেন, “ঈদের সময় এলেই আমাদের রাস্তায় নামতে হয়। কেন তারা বোঝে না আমরা শ্রমিকরা যে কাজ করি, তার বেতন পরিশোধ করতে হয়। তাদের বার বার এভাবে কেন বোঝাতে হয়। আমাদের রাস্তায় কেন নামতে হয়?” 

এদিকে বেপজার জিএম মোহাম্মদ আহসান কবিরের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। 

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, “গত সপ্তাহে বেকা গার্মেন্টস মালিক কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে আসছি। তারা আমাদের আশ্বাস দিয়েছিল ১৮ তারিখের মধ্যে শ্রমিকদের বকেয়া বেতন বুঝিয়ে দেবে। কিন্তু তারা এখনো পর্যন্ত শ্রমিকদের বেতন বুঝিয়ে দেয়নি। তাদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।”

নারায়ণগঞ্জ শিল্প পুলিশের (অঞ্চল-৪) পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামান বলেন, “তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে বেকা গার্মেন্ট এন্ড টেক্সটাইল শ্রমিকরা  সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।  যানজটের সৃষ্টি হলে শ্রমিকদের রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে ইপিজেডে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে।”


About

Popular Links