Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বগুড়ায় ‘ফ্রি ফায়ার’ গেমের টাকার জন্য মাদ্রাসাছাত্রকে হত্যা

আম গাছের ডাল দিয়ে মাথায় আঘাত করে রাকিবকে হত্যা করে তারই দুই বন্ধু

আপডেট : ০৪ জুন ২০২২, ০৮:১৪ পিএম

বগুড়ার সোনাতলায় “ফ্রি ফায়ার” গেমের টাকা নিয়ে বিরোধের জেরে রাকিব হোসেন (১৪) নামে এক মাদ্রাসাছাত্রকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এক কিশোরসহ দু’জনকে আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার দায় স্বীকার করেছে।

শনিবার (৪ জুন) বিকেলে স্বীকারোক্তি রেকর্ডের জন্য তাদের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়েছে। বিষয়টি ঢাকা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেছেন পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র ইন্সপেক্টর জাহিদ হাসান।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নিহত রাকিব হোসেন গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হিয়াতপুর গ্রামের বাসিন্দা। সে পার্শ্ববর্তী বগুড়ার সোনাতলা সিনিয়র ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। রাকিব ৩১ মে বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। তার আত্মীয়স্বজনরা খোঁজ করেও তাকে উদ্ধার করতে পারেনি।

নিহত রাকিব হোসেন/ ফাইল ছবি/ঢাকা ট্রিবিউন

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে সোনাতলা উপজেলা সদরের চমরগাছা লাহিড়ীপাড়ায় একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে নিহতের বড় ভাই বেলাল হোসেন একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে দেওয়া হয়।

পিবিআই’র ইন্সপেক্টর জাহিদ হাসান ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, পিবিআইয়ের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সবুজ ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে নিহত মাদ্রাসাছাত্রের দুই বন্ধুকে আটক করে। এদের একজন অপ্রাপ্তবয়স্ক। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করে মোবাইল ফোনে ফ্রি ফায়ার খেলার টাকা নিয়ে তাদের সঙ্গে রাকিবের বিরোধ হয়। এর জের ধরে তারা আম গাছের ডাল দিয়ে মাথায় আঘাত করে রাকিবকে হত্যা করে। এরপর মরদেহ গ্রামের ডোবায় কচুরিপানার নিচে গুম করে।

তাদের স্বীকারোক্তিতে হত্যায় ব্যবহৃত গাছের ডাল জব্দ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

About

Popular Links