Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রচারণা শেষ, ভোটের অপেক্ষা

বৃহস্পতিবার ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ৮টার পর যাতে কোনো প্রার্থী প্রচারণা না চালাতে পারেন সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে রিটার্নিং অফিসার ও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:১১ এএম

আগামী রবিবার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শুক্রবার সকালে শেষ হয়েছে। গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) ১৯৭২ অনুযায়ী, ভোট গ্রহণের ৪৮ ঘণ্টা আগ থেকে সব ধরনের প্রচার বন্ধ থাকার বিধান রয়েছে।

আরপিওর ৭৮ (১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, ‘ভোটগ্রহণ শুরুর ৪৮ ঘণ্টা আগ থেকে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা সময়ের মধ্যে কোনো নির্বাচনী এলাকায় যে কোনো ধরনের সভা, সমাবেশ, মিছিল ও শোভাযাত্রা করা যাবে না।’

আগামী রবিবার সকাল ৮টা থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হবে। কোনো রকম বিরতি ছাড়া ভোটগ্রহণ চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

মঙ্গলবার মধ্যরাত পর্যন্ত অর্থাৎ ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার ৪৮ ঘণ্টা পার না হলে কোনো জনসভা ও মিছিল করা যাবে না।

বৃহস্পতিবার ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান জানান, শুক্রবার সকাল ৮টার পর যাতে কোনো প্রার্থী প্রচারণা না চালাতে পারেন সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে রিটার্নিং অফিসার ও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দের পর ১০ ডিসেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারণা শুরু হয়।

সারাদেশে মোট ১০ কোটি ৩৮ লাখ ২৬ হাজার ৮১৯ জন ভোটার ২৯৯টি সংসদীয় আসনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এদের মধ্যে ৫ কোটি ২৩ লাখ ৭১ হাজার ৬১৬ জন পুরুষ এবং ৫ কোটি ১৪ লাখ ৫৫ হাজার ২০৩ জন নারী ভোটার রয়েছেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী মারা যাওয়ায় গাইবান্ধা-৩ আসনের নির্বাচন ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

৩৯টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের ১৮০০ এর বেশি প্রার্থীর অংশগ্রহণে এবারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তবে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রকৃত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সংখ্যা ইসি সচিবালয়ে পাওয়া যায়নি।

খসড়া তালিকা অনুযায়ী, এবারের নির্বাচনে ১৮৪৯ জন প্রার্থী লড়ছেন। এদের মধ্যে ১৭৪৮ জন রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন পেয়েছেন এবং ১০১ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়ছেন বলে জানান মোখলেছুর রহমান।

২৯৯টি সংসদীয় আসনের মধ্যে ইভিএমের মাধ্যমে ছয়টি আসনে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। আসনগুলো হলো- ঢাকা-৬ ও-১৩, চট্টগ্রাম-৯, রংপুর-৩, খুলনা-২ এবং সাতক্ষীরা-২। এসব আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ২১ লাখ ২৪ হাজার ৫৫৪ জন।

এদিকে শুক্রবার বিকাল ৫টা থেকে রবিবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত ৪৮ ঘণ্টা মোবাইল ব্যাংকিং ও পোস্টাল ব্যাংকিং সেবা বন্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকে চিঠি দিয়েছে ইসি।

About

Popular Links