Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঈদে বৈধ লাইসেন্সধারীরা মোটরসাইকেলেই ফিরতে চান বাড়ি

চালকেরা দাবি করেছেন, আসন্ন ঈদ-উল-আজহায় যাদের কাছে বৈধ লাইসেন্স রয়েছে, তাদের মোটরসাইকেল চালাতে দেওয়া উচিত। কারণ, মোটরসাইকেল চালাতে না দিলে তাদের ঈদযাত্রা ভোগান্তিতে পরিণত হবে

আপডেট : ০৬ জুলাই ২০২২, ১০:০২ এএম

ঈদযাত্রায় মহাসড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ। প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে যৌক্তিক বলে মনে করেন চালকেরা। তবে তারা দাবি করেছেন, আসন্ন ঈদ-উল-আজহায় যাদের কাছে বৈধ লাইসেন্স রয়েছে, তাদের মোটরসাইকেল চালাতে দেওয়া উচিত। কারণ, মোটরসাইকেল চালাতে না দিলে তাদের ঈদযাত্রা ভোগান্তিতে পরিণত হবে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) চালকেরা রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

চালকেরা বলছেন, প্রশাসন দুর্ঘটনা রোধের জন্য যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা যৌক্তিক। দুর্ঘটনার বেশির ভাগই ঘটে অদক্ষ ও অবৈধ লাইসেন্সধারী চালকদের মাধ্যমে। সেই ক্ষেত্রে এসব চালককে নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন। তবে যাদের কাছে বৈধ লাইসেন্স রয়েছে, তাদের মোটরসাইকেল চালাতে দেওয়া উচিত। কারণ, মোটরসাইকেল চালাতে না দিলে তাঁদের ঈদযাত্রা ভোগান্তিতে পরিণত হবে।

বাংলাদেশি ক্লাব বাইকারস সংগঠনের সমন্বয়ক ফকর উদ্দিন দৈনিক পত্রিকা প্রথম আলোকে বলেন, ঈদ উদ্‌যাপন করতে ঘরমুখী মানুষের পরিবহনসেবা অপ্রতুল। সেক্ষেত্রে অনেকে নিজস্ব পরিবহন ব্যবহার করে প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ করতে যান। সড়কে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ও আনুষঙ্গিক নিরাপত্তা উপকরণ ব্যবহার করে এবং ট্রাফিক শৃঙ্খলা মেনে দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব। কোনো ক্ষেত্রেই বাইক বন্ধ করে দেওয়া সমস্যার সমাধান নয়।

মোটরসাইকেলের চালকেরা জানান, ঈদ ঘিরে মহাসড়কে মোটরসাইকেল চালানোর বিধিনিষেধ অপসারণের দাবি জানিয়ে গত ৩ জুলাই তারা ঢাকা জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছেন।

About

Popular Links