Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘ঝুলন্ত’ উদ্ধারের পর রাবি ছাত্রীর মৃত্যু, পুলিশ হেফাজতে স্বামী

ওসি বলেন, তিনি আত্মহত্যা করেছেন কিনা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে জানা যাবে। রিতার স্বামী রাব্বিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২২, ১২:০৩ পিএম

ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধারের পর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) রিতা আক্তার (২১) নামে আইন বিভাগের এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

রিতার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর এলাকায় ধরমপুরে স্বামী রাব্বিসহ বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। রাব্বি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

রাব্বির বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, রিতাকে রাত সাড়ে ১১টার দিকে গলায় গামছা পেঁচিয়ে বাসার জানালার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। এরপর তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেলে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আইন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক হাসিবুল আলম প্রধান বলেন, ‌“ঘটনাটি শুনে রাতেই রামেক হাসাপাতালে গিয়েছি। ওই ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে মনে হচ্ছে। তবে আমরা বিভাগের পক্ষ থেকে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।”

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, “মরদেহ হাসপাতাল মর্গে আছে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন কিনা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে জানা যাবে। তার পরিবারের লোকজন এসেছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে এ ঘটনায় মামলা করা হবে। রিতার স্বামী রাব্বিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”

About

Popular Links