Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

জামিনে বেরিয়ে প্রতিপক্ষের হাতে দিতে হলো প্রাণ

বাহুবল মডেল থানার পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, রাতেই নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে

আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২২, ০৫:০১ পিএম

জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষের মামলায় কারাগারে ছিলেন হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার লামাতাশি ইউনিয়নের বাসিন্দা আলম মিয়া (২২)। সেই ঘটনায় গত ১৫ দিন আগে তিনি জামিনে মুক্তি পান।

রবিবার (১৪ আগস্ট) উপজেলার মিরপুর বাজার সংলগ্ন তিতারকোণা এলাকায় তাকে একা পেয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন ছুরিকাঘাত করে বলে অভিযোগ ওঠে। গুরুতর অবস্থায় হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনায়  জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বাহুবল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম খান বিষয়টি ঢাকা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পশ্চিম দ্বিমুড়া গ্রামের তাহির মিয়ার সঙ্গে প্রতিবেশি সাবেক ইউপি সদস্য কুতুব আলীর দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরে কিছুদিন আগে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় কুতুব আলীর করা মামলায় ১৫ দিন আগে কারাগার থেকে জামিনে বের হন আলম মিয়া। ঘটনার দিন রাতে তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে প্রতিপক্ষের লোকজন। স্থানীয়রা গুরুতর আহত উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলমকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পুলিশ কর্মকর্তা রকিবুল ইসলাম খান জানান, এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে একজনকে আটক করা হয়েছে। আটক ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন তিনি। 

এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, “রাতেই নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।”

About

Popular Links