Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মহরমসহ ১৩ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ

বরগুনায় জাতীয় শোক দিবসে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনায় করা কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে

আপডেট : ২২ আগস্ট ২০২২, ০৮:৫১ পিএম

বরগুনায় জাতীয় শোক দিবসে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় পুলিশের লাঠিপেটার ঘটনায় করা কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। তদন্ত কমিটি বরগুনা থেকে চট্টগ্রাম রেঞ্জে বদলি করা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীসহ ১৩ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছে।

প্রতিবেদনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, একজন পুলিশ পরিদর্শক, তিন উপপরিদর্শক, চার সহকারী উপপরিদর্শক ও চার নায়েক ও কনস্টেবলের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।  

সোমবার (২২ আগস্ট) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) এস এম আক্তারুজ্জামান।

তিনি বলেন, বরগুনার ঘটনায় তদন্ত কমিটি রবিবার সন্ধ্যায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। প্রতিবেদনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীসহ ১৩ সদস্যের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে এবং বাকিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে বরগুনা পুলিশ সুপারকে চিঠি দেওয়া হয়েছে।

বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) এসএম তারেক রহমানকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা ছিলেন বরগুনার পাথরঘাটা বামনার সার্কেল এসপি তোফায়েল হোসেন ও পুলিশ সুপার কার্যালয়ের পাবলিক রিলেশন অফিসার মো. শাহাবুদ্দিন।  

গত ১৫ আগস্ট দুপুরে বরগুনার শিল্পকলা একাডেমিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় পুলিশ বেধড়ক লাঠিপেটা করে। এ সময় সেখানে উপস্থিত এমপি ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু লাঠিচার্জের কারণ জিজ্ঞাসা করলে তার সঙ্গেও মহরম আলী বাগবিতণ্ডায় জড়ান বলে অভিযোগ উঠেছে। রাতে এমপি শম্ভু বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে মহরম আলীকে প্রত্যাহার ও চাকরিচ্যুত এবং অন্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

About

Popular Links