Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রথমবার ভোট দিতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলো আওয়ামী লীগ সমর্থক

নির্বাচনী সহিংসতার মধ্যে পড়ে মৃত্যুবরণ করতে হয় ২২ বছর বয়সী আবদুল্লাহকে

আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৩৪ পিএম

প্রথমবারের মতো ভোট দিতে গিয়ে লাশ হয়ে ঘরে ফিরতে হয়েছে তরুণ এক আওয়ামী লীগ সমর্থককে। কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের মাতবরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে গিয়ে নির্বাচনী সহিংসতার মধ্যে পড়ে মৃত্যুবরণ করতে হয় ২২ বছর বয়সী আবদুল্লাহকে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রবিবার সকালে মাতবরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাইরে তুমুল সংঘর্ষ বাধে। এসময় সংঘর্ষের ভেতর পড়ে যান আবদুল্লাহ। তাকে লাঠি দিয়ে আঘাত করা হয় এবং তার মাথায় দা দিয়ে কোপ দেওয়া হয়।

এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে কক্সবাজারের পেকুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত ডাক্তার।

প্রথম আলোর একটি খবরে বলা হয় আবদুল্লাহ এবং তার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের একনিষ্ঠ সমর্থক। এলাকার মানুষও তাদের আওয়ামী লীগের সমর্থক হিসেবে জানে।

আবদুল্লাহ'র ভাই আবদুল মালেক বলেন, "আমরা সবাই নৌকার সমর্থক। কিন্তু কেউ সরাসরি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নই। তবুও আমার ভাইকে মরতে হল"।

মালেকের পাশেই বিলাপ করছিলেন আবদুল্লাহর মা আয়েশা বেগম। তিনি এখনও বিলাপ করে বলছেন, "কেন তুই ভোট দিতে গেলি?"

এ বিষয়ে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাফর আলম এই ঘটনার জন্য বিএনপিকে দায়ী করে বলেন, "পরাজয় নিশ্চিত জেনে ধানের শীষের প্রার্থীর লোকজন হত্যাযজ্ঞে নেমে পড়েছেন"।

তবে, অভিযোগ অস্বীকার করে ধানের শীষের প্রার্থী হাসিনা আহমেদ বলেন, "যে কেন্দ্রের সামনে আবদুল্লাহ মারা গেছেন, সেই কেন্দ্রসহ ৫০টি কেন্দ্র থেকে আমার পোলিং এজেন্টদের মেরে বের করে দেওয়া হয়েছে। তাই এই ঘটনায় আমার কর্মীদের জড়িত থাকার কোন সুযোগ নেই"।

About

Popular Links