Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ২৩ বছর পর গ্রেপ্তার

আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় সে নিজের পরিচয় গোপন করে জাতীয় পরিচয়পত্রে বাবা ও মায়ের নাম ঠিক রেখে নিজের নাম বিপ্লবের পরিবর্তে শহিদুল ইসলাম ব্যবহার করে ছিল

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:৪৪ পিএম

২৩ বছর ধরে পলাতক এক খুনের আসামি বিপ্লবকে (৫০) ঢাকার মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে রাজধানীর মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব-৪ এর একটি দল গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব-৪ এর কোম্পানি কমান্ডার মোহাম্মদ আরিফ হোসেন ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে ১৯৯৯ সালের জুলাই মাসে মানিকগঞ্জে মোতালেব হোসেনের বাড়িতে হামলা চালায় বিপ্লব ও তার সহযোগীরা। 

তবে মোতালেব বাড়িতে নেই দেখে তারা মোতালেবের বিপরীতে বসবাসকারী কাবুল খানের ওপর হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে।

স্থানীয়রা কাবুলকে উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

পরদিন মোতালেব হোসেন বাদী হয়ে বিপ্লবসহ ২৮-৩০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করলে সে ও তার সহযোগীরা আত্মগোপন করে। 

গ্রেপ্তার এড়াতে বিপ্লব নিজের নাম পরিবর্তন করে শহীদ রাখেন ও ঢাকায় পালিয়ে যান।

আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় সে নিজের পরিচয় গোপন করে জাতীয় পরিচয়পত্রে বাবা ও মায়ের নাম ঠিক রেখে নিজের নাম বিপ্লবের পরিবর্তে শহিদুল ইসলাম ব্যবহার করে ছিল। 

এছাড়াও আত্মগোপনে থাকাকালীন গ্রেপ্তার এড়াতে তিনি পেশা পরিবর্তন করতেন। প্রথমদিকে তিনি ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় দোকানের কর্মচারী, ইলেকট্রিক মিস্ত্রী ও পরবর্তীতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে প্রতারণামূলক দালালি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দীর্ঘ তদন্ত শেষে বিপ্লবসহ ১৩ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দায়ের করেন। যার ভিত্তিতে আদালত আসামি বিপ্লবকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন। এ ঘটনার পর থেকে আসামি বিপ্লব দীর্ঘ ২৩ বছর ধরে পলাতক ছিলেন।

About

Popular Links