Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

টেকনাফে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে রোহিঙ্গা যুবকের মৃত্যু

ওসি বলেন,সেলিম টেকনাফ নয়াপাড়া মোছনী ক্যাম্পের ডাকাত চাকমাইয়া গ্রুপের স্বক্রিয় সদস্য। উনচিপ্রাং তুতারদিয়া নামক সীমান্ত এলাকায় নবী ও মুন্না গ্রুপের সংঘর্ষের সময় তিনি গুলিবিদ্ধ হন

আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:৪১ পিএম

কক্সবাজারে টেকনাফে দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মোহাম্মদ সেলিম (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সেলিম টেকনাফ মোছনী ক্যাম্পের আবদুস সালামের ছেলে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে ঢাকা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী।

ওসি জানান, মঙ্গলবার ভোররাতে উখিয়ার কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে অজ্ঞাত তিন ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মোহাম্মদ সেলিমকে নিয়ে আসেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সেলিমের মৃত্যু হলে ওই তিন ব্যক্তি পালিয়ে যান। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

তিনি বলেন, “নিহত সেলিম টেকনাফ নয়াপাড়া মোছনী ক্যাম্পের ডাকাত চাকমাইয়া গ্রুপের স্বক্রিয় সদস্য। উনচিপ্রাং তুতারদিয়া নামক সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাসী নবী হোসেন গ্রুপ ও মুন্না গ্রুপের সংঘর্ষের সময় তিনি গুলিবিদ্ধ হন। পরবর্তীতে গুলিবিদ্ধ রোহিঙ্গাকে ৩ জন অজ্ঞাত ব্যক্তি কর্তৃক কুতুপালং এমএসএফ হাসপাতালে রেখে কৌশলে পালিয়ে যান।”

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল হালিম বলেন, “নিহত ব্যক্তি টেকনাফের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে হলেও ঘটনাস্থল উখিয়া বলে জানা গেছে। বিস্তারিত তথ্য নেওয়া হচ্ছে।”

About

Popular Links