Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রতিমন্ত্রী: বিএনপির কর্মকাণ্ড জানিয়ে বিদেশি মিশনে চিঠি দিয়েছে সরকার

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে বড় কোনো ঘটনা ঘটলে আমরা সবাইকে জানিয়ে রাখি, এটা নতুন কিছু নয়

আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:৩৮ পিএম

বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে ১০ ও ৭ই ডিসেম্বরের প্রকৃত ঘটনা সম্পর্কে কূটনীতিকদের জানাতে বাংলাদেশে বিদেশী মিশনগুলোতে চিঠি পাঠিয়েছে সরকার।

মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লা‌বে উইমেন জার্নালিস্টস নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ (উ‌ব্লিউ‌জেএন‌বি) আয়ো‌জিত এক অনুষ্ঠান শে‌ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবা‌বে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এ কথা জানান।

তিনি বলেন, “দেশে বড় কোনো ঘটনা ঘটলে আমরা সবাইকে জানিয়ে রাখি। এটা নতুন কিছু নয়। স্বাভাবিক কূটনৈতিক প্রক্রিয়া। কূটনৈতিক নিয়মানুযায়ী, দেশে ঘটে যাওয়া বড় ধরনের ঘটনা সম্পর্কে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সবসময় বিদেশি কূটনীতিকদের অবহিত করে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “বিদেশি কূটনীতিকদের জন্য কোনো ব্রিফিংয়ের ব্যবস্থা না করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঢাকায় অবস্থিত বিদেশি মিশনগুলোকে চিঠি দিয়েছে।”

তিনি বলেন, “পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিদেশি কূটনীতিকদের প্রকৃত ঘটনা জানাতে চায়। কারণ বিএনপি নেতারা ১০ ডিসেম্বরের পর থেকে ভুল তথ্য দিয়ে এখানে বিভিন্ন বিদেশি মিশনে সফর করছেন।”

চিঠির মাধ্যমে আলম বলেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিএনপি নেতাদের গ্রেপ্তারের প্রেক্ষাপট সম্পর্কে বিদেশি মিশনগুলোকেও জানিয়েছে।”

তিনি বলেন, “বিষয়টি নিয়ে কেউ আমাদের জিজ্ঞাসা করার আগেই আমরা তাদের (কূটনীতিকদের) প্রকৃত ঘটনা জানাতে চেয়েছিলাম।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “সরকার সবসময় চেয়েছিল বিএনপিকে ঢাকায় শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে দিতে। যেভাবে বিরোধী দল বিভাগীয় শহরে সমাবেশ করেছে।”

ঢাকায় সমাবেশকে কেন্দ্র ক‌রে বিএন‌পি প্রোপাগান্ডা চালিয়েছে অভিযোগ করে শাহ‌রিয়ার আলম ব‌লেন, “বিএনপি ১০ তারিখ ঘিরে নানা প্রোপাগান্ডা চালিয়েছে দেশে এবং দেশের বাইরে। তারা মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে লবিস্টের পেছনে। তারা নিশ্চিত ছিল নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আসবে, সেটাকে ঘিরে তারা উৎসব আমেজে ১৯ তারিখ পালন করতে চেয়েছিল। তারা ভেবেছিল সবাইকে জানাবে সরকারের কোনো বন্ধু নেই। কিন্তু বিএন‌পির পুরো পরিকল্পনা ভেস্তে গেছে।”

প্রতিমন্ত্রী ঢাকায় উইমেন জার্নালিস্ট নেটওয়ার্ক, বাংলাদেশ (ডব্লিউজেএনবি) এবং কানাডিয়ান হাইকমিশনের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত “বিদ্বেষমূলক বক্তব্য ও ভুল তথ্য মোকাবেলায় ডিজিটাল সাক্ষরতার গুরুত্ব” শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় অংশ নেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আলোচনায় যোগ দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার লিলি নিকোলস।

About

Popular Links