Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তথ্যমন্ত্রী: স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি বিদেশিদের দেশ সম্পর্কে ভুল তথ্য দিচ্ছে

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে স্বাধীনতার পাঁচ দশকেরও পরে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি আজকে আবারও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। তারা বিদেশিদের কাছে দেশ সম্পর্কে নানা ধরনের ভুল তথ্য দিচ্ছে

আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:২৪ এএম

স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি বিদেশিদের কাছে দেশ সম্পর্কে নানা ধরনের ভুল তথ্য দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, “দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে স্বাধীনতার পাঁচ দশকেরও পরে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি আজকে আবারও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। তারা বিদেশিদের কাছে দেশ সম্পর্কে নানা ধরনের ভুল তথ্য দিচ্ছে। দেশে-বিদেশে তারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।”

বিজয় দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, “যারা আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করেছিল, যারা আমাদের মুক্তিকামী মানুষের বিরুদ্ধে অস্ত্র দিয়েছিল সেই জামায়াতে ইসলামী তাদের বংশধরের, বিএনপির যেসব নেতা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছিল তারা বিএনপি দলগত হিসেবে আজকে দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। আমাদের প্রত্যয় হচ্ছে দেশবিরোধী সমস্ত অপশক্তিকে দমন করে দেশকে স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়া।”

হাছান মাহমুদ বলেন, “আমাদের স্বপ্নের ঠিকানা হচ্ছে ২০৪১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে পরিপূর্ণভাবে একটি উন্নত দেশে রূপান্তর করা। প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে ডিজিটালে রূপান্তর করেছে। এখন বাংলাদেশকে ‘স্মার্ট বাংলাদেশে' রূপান্তর করা এটি হচ্ছে আমাদের স্বপ্ন।” 

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, “আজকে মহান বিজয় দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে, ২ লাখ মা ও বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে এবং বহু আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকে ছিন্ন করে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে আমাদের পূর্বসূরি মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল। আজকে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের পথে বাংলাদেশ গত চৌদ্দ বছরে অভাবনীয় উন্নতি সাফল্য করেছে। বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে উন্নত হয়েছে, বাংলাদেশ আজকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন আজকে বিশ্বব্যাংক থেকে শুরু করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, জাতিসংঘের মহাসচিব থেকে শুরু করে সবাই প্রশংসা করছে।”

About

Popular Links