Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মৃত্যুর আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একবার হ্যান্ডশেক করতে চান তিনি

সিদ্দিক মিয়া বলেন, ১৯৭০ সালে বঙ্গবন্ধু নেত্রকোনায় গিয়েছিলেন। আমি তার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করেছি। মৃত্যুর আগে শেখ হাসিনার সঙ্গে একবার দেখা করতে চাই। তার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করাই আমার শেষ ইচ্ছে

আপডেট : ২৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৫৪ পিএম

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় সম্মেলনে শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) অংশ নিয়েছেন নেত্রকোনার ৬৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ সিদ্দিক মিয়া। ভ্যানকে আস্ত নৌকার আদলে বানিয়ে তিনদিন ধরে সেই বাহনেই নেত্রকোনা থেকে ঢাকায় এসেছেন তিনি।  সকাল থেকেই সম্মেলনস্থলের বিভিন্ন প্রান্তে ভ্যানটি নিয়ে প্রদক্ষিণ করেছেন।

সিদ্দিক মিয়া ২০১৪ সাল থেকে নৌকার আদলে বানানো এই ভ্যান চালিয়ে ঢাকাসহ যেখানেই আওয়ামী লীগের প্রোগ্রাম হয় সেখানেই যান বলে জানিয়েছেন।

তিনি অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, “এত কষ্ট করে দূর থেকে আসি শুধু বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে। আমার কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই। জীবনে সবসময় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মেনে চলেছি। এটা সবাই জানে। যুদ্ধের পর থেকে আজ পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মেনে চলার কারণে ও আওয়ামী লীগ করার কারণে অনেক বাধা-বিপত্তির শিকার হয়েছি। নিজের এলাকায় পারিবারিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছি, তবুও বিচলিত হয়ে পিছপা হইনি।”

১৯৭০ সালের ঘটনা বর্ণনা করে এই বৃদ্ধ বলেন, “আমি তখন ক্লাস ফাইভে পড়াশোনা করি। তখন বঙ্গবন্ধু নেত্রকোনায় গিয়েছিলেন। আমি তার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করেছি। মৃত্যুর আগে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সঙ্গে একবার দেখা করতে চাই। তার সঙ্গে হ্যান্ডশেক করাই আমার শেষ ইচ্ছে।”

বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্পর্কে তিনি বলেন, “তিনি অত্যন্ত ভালো মানুষ। তার সাংগঠনিক দক্ষতা ও যোগ্যতায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছে। আশা করি তিনি এবারও নির্বাচিত হবেন।”

About

Popular Links