Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি থেকে হাতিয়ে নিতেন টাকা, পঞ্চম স্ত্রীর অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

জয়পুরহাটে প্রতারণার মাধ্যমে পাঁচ বিয়ে করে অর্থ ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মেহেদী হাসান (২৮) নামে এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব

আপডেট : ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ১০:০৮ এএম

জয়পুরহাটে প্রতারণার মাধ্যমে পাঁচ বিয়ে করে অর্থ ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মেহেদী হাসান (২৮) নামে এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। এই ঘটনায় পাঁচ ভুক্তভোগীকেও উদ্ধার করা হয়েছে।

মেহেদী জয়পুরহাট সদর উপজেলার পাঞ্চাতীপাড়া কেন্দুলী গ্রামের বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। শুক্রবার সংবাদমাধ্যমকে এসব তথ্য জানান জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ সিপিসি-৩ কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোস্তফা জামান।

র‍্যাব জানায়, ২০ জানুয়ারি সদর উপজেলার জামালপুর গ্রামের মেহেদী হাসানের পঞ্চম স্ত্রী জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ সিপিসি-৩ ক্যাম্পে অভিযোগ করেন, তার স্বামী মেহেদী হাসানসহ লতিফ (২৫) ও মিন্টু হোসেন (২৪) নিজেদের ঠিকাদার, ইজারাদার ও বিত্তশালী পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় একাধিক বিয়ে করেন। এরপর শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে ওই এলাকা ত্যাগ করেন। পরে অন্য এলাকায় গিয়ে একই কাজ করেন তারা।

“অভিযুক্তরা পরস্পর যোগসাজশে একে অপরের ভাই, আত্মীয় বা সাক্ষী হিসেবে পরিচয় দিয়ে কাজ করতেন। অভিযোগ পাওয়ার পর র‍্যাব-৫ ক্যাম্প থেকে ছায়া তদন্ত শুরু করা হয় এবং ঘটনার সত্যতা পায়।”

মেজর মোস্তফা জামান জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে অভিযোগকারী নারীর ভাই র‍্যাব ক্যাম্পে ফোন দিয়ে বলেন, সহযোগীদের নিয়ে মেহেদী জামালপুর এলাকায় তার বোন, ভাগনে ও মাকে আটকে রেখে নির্যাতন করছেন। এরপর র‍্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। 

তিনি বলেন, “এ সময় প্রতারক চক্রের অন্য দুই সদস্য লতিফ ও মিন্টু পালিয়ে যান। এই ঘটনায় জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা হয়েছে।”

About

Popular Links