Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বরখাস্ত মেয়র জাহাঙ্গীরের দুর্নীতির তদন্ত চেয়ে রিট

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বরখাস্তকৃত মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম তার প্রায় ৩ বছরের বেশি সময়কালে ৭ হাজার ৪০০ কোটি টাকা অনিয়ম করেছেন বলে অভিযোগ পেয়েছে দুদক

আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০১:৩০ পিএম

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদ থেকে বরখাস্ত জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

গাজীপুরের স্থানীয় এক বাসিন্দার পক্ষে অ্যাডভোকেট একরামুল হক টুটুল রিট করেন। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যানসহ রিটে সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রিট করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

মেয়র জাহাঙ্গীরের দুর্নীতি নিয়ে ইংরেজি সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টারের একটি প্রতিবেদন রিট আবেদনে সংযুক্ত করা হয়েছে।

গত বছরের ৪ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) জানায়, মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে ৭ হাজার ৪০০ কোটি টাকা অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সেসময় সাংবাদিকদের দুদকের সহকারী পরিচালক আশিকুর রহমান আশিক বলেন, “গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বরখাস্তকৃত মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম তার প্রায় ৩ বছরের বেশি সময়কালে ৭ হাজার ৪০০ কোটি টাকা অনিয়ম করেছেন বলে অভিযোগ পেয়েছে দুদক।”

২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে গোপনে ধারণ করা জাহাঙ্গীর আলমের কথোপকথনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জেলার কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ নেতা সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করা হয়েছে বলে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা অভিযোগ করেন। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধ নিয়েও জাহাঙ্গীর আলম বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দেন বলে অভিযোগ ওঠে।

বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য মেয়র জাহাঙ্গীরকে ২০২১ সালের ১৯ নভেম্বর দল থেকে বহিষ্কার করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের অভিযোগে এই মামলা হয়। মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ফরিদপুর, রাজবাড়ী, গাজীপুর, নওগাঁ, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, পঞ্চগড়সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় একই অভিযোগে মামলা করা হয়। ২৫ নভেম্বর তাকে মেয়র পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

About

Popular Links