Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঘুষের টাকাসহ কর কর্মকর্তা আটক, দুদকের ওপর হামলা

গাইনি চিকিৎসক ডা. ফাতেমা সিদ্দিকীকে আয়করের ফাইল রিওপেন ও মামলার ভয় দেখিয়ে ৬০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন কর কর্মকর্তা মহিবুল। এ বিষয়ে ফাতেমা দুদকে অভিযোগ করেন

আপডেট : ০৪ এপ্রিল ২০২৩, ০৬:০৫ পিএম

রাজশাহী কর অঞ্চলের উপ-কর কমিশনার মহিবুল ইসলাম ভূঁইয়াকে ঘুষের ১০ লাখ টাকাসহ হাতেনাতে ধরেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ডা. ফাতেমা সিদ্দিকী নামে এক নারী চিকিৎসকের অভিযোগের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়।

তবে আটক কর্মকর্তা দাবি করেছেন, আটকের আগে তার কক্ষে ওই নারী চিকিৎসক টাকা রেখেছেন। তিনি সেই সময় বাইরে ছিলেন। পরে তাকে জোর করে রুমে ঢুকিয়ে ফাঁসানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুদক অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় দুদক কর্মকর্তাদের ওপর হামলা করা হয়। তাদের ওপর চড়াও হয় কর অফিসের কর্মচারীরা; অবরুদ্ধ করা হয়। বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশ দুদক কর্মকর্তাদের উদ্ধার করে। 

ঘটনাস্থলে দেখা গেছে, রাজশাহী কর অঞ্চলের উপ-কর কমিশনার মহিবুল ইসলাম ভূঁইয়ার দপ্তরের দরজা ভাঙা এবং ভেতরের কাগজপত্র নিচে ছড়ানো-ছেটানো।

এ বিষয়ে দুদকের রাজশাহীর বিভাগীয় পরিচালক কামরুল আহসান বলেন, “গাইনি চিকিৎসক ডা. ফাতেমা সিদ্দিকীকে আয়করের ফাইল রিওপেন ও মামলার ভয় দেখিয়ে ৬০ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন কর কর্মকর্তা মহিবুল। এ বিষয়ে ফাতেমা দুদকে অভিযোগ করেন। আজকে সেই ৬০ লাখ টাকার প্রথম কিস্তির ১০ লাখ টাকা দেওয়ার সময় ওই কর্মকর্তাকে হাতেনাতে আটক করা হয়।”

তিনি আরও বলেন, “তখন কর অফিসের কর্মচারীরা আমাদের ওপর চড়াও হয়। আমরা নিজেদের আত্মরক্ষার চেষ্টা করেছি। এরপর আমরা পুলিশের সহায়তা নিই। এই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদক আইনে মামলা হবে।”

এ বিষয়ে কর অঞ্চল রাজশাহীর কর কমিশনার মো. শাহ আলী বলেন, “আজকে আমাদের অন্য একটি শাখায় ট্রেনিং প্রোগ্রাম চলছিল। দুদক কর্মকর্তারা এখানে আসার পর আমাকে ফোন করে বলেছিলেন, এখানে একটা অভিযোগ পাওয়া গেছে। সে ভিত্তিতে তারা কাজ করবেন। আমার অফিস তাদের সহযোগিতা দিয়েছে। আর হাতাহাতি বা হামলার বিষয়টি আমি বলতে পারব না। অফিসিয়ালি এ বিষয়ে কেউ কিছু জানায়নি।”

কর কমিশনার আরও বলেন, “কর অফিসের ওই পদের কর্মকর্তা যে কাজগুলো করেন, তার লিগ্যাল কিছু প্রসিডিউর আছে। সেখানে প্রত্যেকটা কাজ কমিশনার অফিসে জানাতে হয় না। এখন ওই ফাইল সম্পর্কে কী কার্যক্রম হচ্ছে, সেটা জানা ছিল না। এখন উদ্ভূত ঘটনা সম্পর্কে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তারা যেভাবে নির্দেশনা দেবেন, সেভাবেই কাজ করা হবে।”

কর কর্মকর্তা মহিবুল ইসলাম ভূঁইয়া গ্রেপ্তারের সময় চিৎকার করে বলেন, “আমি অফিসের বাইরে ছিলাম, তখন ডা. ফাতেমা সিদ্দিকী অফিসে ঢুকে টাকাগুলো ড্রয়ারে রেখেছে। এই সময় দুদকের লোকজন আমাকে ধস্তাধস্তি করে রুমে ঢুকিয়ে দরজা আটকে মারধর করে। পরে দরজা খোলা হয়েছে।”

About

Popular Links