Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দেশে গড় আয়ু কমলো ৫ মাস, পুরুষের চেয়ে নারীর আয়ু বেশি

দেশের মানুষের গড় আয়ু ৫ মাস কমে ৭২.৩ বছরে নেমে এসেছে। দেশে পুরুষের চেয়ে নারীর গড় আয়ু বেশি। পুরুষের গড় আয়ু ৭০.৬ বছর। আর নারীর গড় আয়ু ৭৪.১ বছর

আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২৩, ০৩:৪৫ পিএম

দেশের মানুষের গড় আয়ু ৫ মাস কমে ৭২.৩ বছরে নেমে এসেছে। দেশে পুরুষের চেয়ে নারীর গড় আয়ু বেশি। পুরুষের গড় আয়ু ৭০.৬ বছর। আর নারীর গড় আয়ু ৭৪.১ বছর।

সোমবার (১৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) সর্বশেষ স্যাম্পল ভাইটাল স্ট্যাটিসটিকসে এ তথ্য উঠে এসেছে। 

এর আগের তথ্য অনুযায়ী, দেশের মানুষের গড় আয়ু ছিল ৭২.৮ বছর। এই প্রথমবার বাংলাদেশে মানুষের গড় আয়ু কমল।

সোমবার রাজধানীর পরিসংখ্যান ভবন মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ স্যাম্পল ভাইটাল স্ট্যাটিসটিকস ২০২১- এর ফল প্রকাশিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব শাহনাজ আরেফিন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিবিএসের মহাপরিচালক মতিয়ার রহমান।

রিপোর্ট অন বাংলাদেশ স্যাম্পল ভাইটাল স্ট্যাটিসটিকস জরিপের ফল উপস্থাপন করেন প্রকল্প পরিচালক আলমগীর হোসেন। 

তিনি বলেন, গড় আয়ু কমে যাওয়ার চিত্রটি অত্যন্ত নগণ্য। এটি কোভিডের কারণে কমতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

জরিপে দেখা গেছে, ২০২১ সালের হিসাব অনুযায়ী, দেশের জনসংখ্যা ১৬ কোটি ২৭ লাখ। এর মধ্যে পুরুষ ৮ কোটি ১৪ লাখ এবং নারী ৮ কোটি ১৩ লাখ। প্রতিবছর জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার আগের মতো ১.৩৭%।

দেশে মোট জনসংখ্যার ৪ ভাগের ১ ভাগ এখন তরুণ। যাদের বয়স ১৫ থেকে ২৯ বছরের মধ্যে। সংখ্যায় ৪ কোটি ৭৪ লাখ। গত ৯ এপ্রিল বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) জনশুমারি ও গৃহগণনার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

তারুণ্যের পাশাপাশি দেশে কর্মক্ষম মানুষের পাল্লাও ভারী। মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় ৬২% মানুষ কর্মক্ষম, যাদের বয়স ১৫ থেকে ৫৯ বছরের মধ্যে। সংখ্যায় যা ১০ কোটি ৫০ লাখ। 

জনশুমারি ও গৃহগণনার প্রতিবেদনে দেখা যায়, দেশে ১৫ থেকে ১৯ বছর বয়সী মোট জনগোষ্ঠী এখন ১০.১০%। ২০ থেকে ২৪ বছর বয়সীর হার ৯.১৭%। আর ২৫ থেকে ২৯ বছর বয়সীর হার ৯.১৭%। ১৫ থেকে ২৯ বছর বয়সীদের তরুণ হিসেবে ধরা হয় দেশে। সে হিসেবে তারুণ্যের হার ২৭.৯৬%, সংখ্যায় যা পৌনে পাঁচ কোটি।

বিবিএস জানিয়েছে, দেশে প্রবীণ বা ষাটোর্ধ্ব মানুষের সংখ্যা তুলনামূলক কম। মোট জনগোষ্ঠীর ১ কোটি ৯৮ লাখ মানুষ ষাটোর্ধ্ব। এ হার ১১.৬৬%।

জনশুমারি ও গৃহগণনার চূড়ান্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশে এখন জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন। মোট জনগোষ্ঠীর ৪৯.৫১% পুরুষ। নারীর সংখ্যা ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন, যা মোট জনগোষ্ঠীর ৫০.৪৩%। অর্থাৎ পুরুষের তুলনায় নারী ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯১৭ বেশি।

ধর্মভিত্তিক জনসংখ্যার হিসাবে দেখা যায়, দেশে এখন মুসলমান জনসংখ্যা ১৫ কোটি ৪৫ লাখ ৪২ হাজার ৭৮ জন, যা মোট জনগোষ্ঠীর ৯১%। অন্য ধর্মাবলম্বীর হার ৮.৯৫%।

শুমারির তথ্য আরও বলছে, গ্রামে বসবাস করছে ১১ কোটি ৬১ লাখ মানুষ, যা মোট জনগোষ্ঠীর ৬৮.৩৪%। শহরে বসবাস করছে ৫ কোটি ৩৮ লাখ মানুষ বা ৩১.৬৬%।

বিবিএসের তথ্য বলছে, দেশে এখন সবচেয়ে বেশি মানুষ বসবাস করে ঢাকা বিভাগে- ৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৯১৫ জন, যা মোট জনগোষ্ঠীর ২৬.৮৮%। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে থাকা চট্টগ্রাম বিভাগে বাস করে ৩ কোটি ৪১ লাখ, যা মোট জনগোষ্ঠীর ২০%। এরপরই আছে রাজশাহী বিভাগ- ১২.২৪%। সবচেয়ে কম মানুষের বসবাস বরিশাল বিভাগে- মাত্র ৯৩ লাখ ২৫ হাজার, যা মোট জনগোষ্ঠীর ৫.৫%।

About

Popular Links