Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘ঘুষ দাবি করায়’ কুমারখালীতে রেলের কর্মচারী-যাত্রীর সংঘর্ষ, আহত ২

ওই যাত্রীর অভিযোগ, টিকিট কাটার পরও ঘুষ দাবি করে তার ওপর হামলা করা হয়েছে

আপডেট : ২৬ এপ্রিল ২০২৩, ১০:০৮ পিএম

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পোড়াদহ-গোপালগঞ্জ রেলপথে মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের কর্মচারীদের সঙ্গে কয়েকজন যাত্রীর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ট্রেনটির সহকারী চালক ও একজন যাত্রী আহত হয়েছেন। ওই যাত্রীর বাবাকে আটক করেছে রেলওয়ে পুলিশ।

বুধবার (২৬ এপ্রিল) দুপুরে কুমারখালী রেলস্টেশনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ কারণে ট্রেনটি কুমারখালী থেকে প্রায় ৩০ মিনিট দেরিতে স্টেশন ছেড়ে যায়।

আহতরা হলেন, মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের সহকারী চালক মো. জাহিদ হাসান (৪০) ও কুমারখালী উপজেলার শিলাইদহ ইউনিয়নের কল্যাণপুর গ্রামের মো. আসিফ হোসেন (১৯)। আটকের নাম সাইফুল ইসলাম। 

আসিফ হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সহকারী চালক জাহিদ হাসানও একই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তার মাথায় তিনটি সেলাই দেওয়া হয়েছে।

ওই যাত্রীর অভিযোগ, টিকিট কাটার পরও ঘুষ দাবি করে তার ওপর হামলা করা হয়েছে।

আহত আসিফ হোসেন বলেন, “কুমারখালী থেকে ফরিদপুরের ভাঙ্গায় যাওয়ার জন্য তারা একসঙ্গে ১৮ জন ধানকাটা শ্রমিক টিকিট কেটে ট্রেনে উঠেছিলেন। ট্রেনের বগিতে জায়গা না থাকায় তারা ইঞ্জিনের পাশে অবস্থান নেন। এ কারণে ট্রেনের কর্মকর্তা পরিচয়ে সাদা পোশাকে এক ব্যক্তি প্রথমে তার কাছে ৫০ টাকা ঘুষ দাবি করেন। তিনি ঘুষ দিতে না চাইলে ওই ব্যক্তি তাকে দুটি থাপ্পড় ও লাথি দিয়ে মালামাল নিচে ফেলে দেন। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। একপর্যায়ে আহত অবস্থায় তার বাবাকে রেলওয়ে পুলিশ আটক করে।”

মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম ঘুষ চাওয়ার অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করে বলেন, “কয়েকজন শ্রমিক ধান কাটতে ভাঙ্গা যাওয়ার জন্য ট্রেনের ইঞ্জিনে উঠেছিল। ট্রেন কর্তৃপক্ষ ইঞ্জিনে উঠছে নিষেধ করায় শ্রমিকেরা তাদের ওপর হামলা চালিয়েছেন। এ সময় ট্রেনের সহকারী চালক জাহিদের মাথায় কাঁচি দিয়ে কোপ মেরেছেন শ্রমিকেরা। তার মাথায় তিনটি সেলাই লেগেছে। রেলওয়ে পুলিশ একজন শ্রমিককে আটক করেছে।”

কুমারখালী স্টেশনমাস্টার মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, “মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনটি সাত মিনিট দেরিতে বেলা সাড়ে ১১টায় স্টেশনে পৌঁছায়। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটের দিকে মারামারি হয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের দুজন আহত হয়েছেন। একজনকে আটক করেছে পুলিশ। কী নিয়ে মারামারি, তা তিনি জানেন না।”

পোড়াদহ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. এমদাদুল হক বলেন, “কুমারখালী রেলস্টেশনের ঘটনাটি তার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেবেন।”

About

Popular Links