Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভোট দিয়ে জয়ের আশা ব্যক্ত করলেন আজমত উল্লা

আজমত উল্লা বলেন, নতুন ভোটার, যুবক ও নারীদের মধ্যে একটা উৎসাহ দেখা গেছে। ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। উৎসবমুখর পরিবেশে মানুষ ভোট দিচ্ছেন

আপডেট : ২৫ মে ২০২৩, ১০:০২ এএম

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ চলছে। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮টা থেকে ৫৭ ওয়ার্ডের ৪৮০টি কেন্দ্রে একযোগে ইভিএমে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

সকাল ৯টার দিকে সিটির ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের টঙ্গীর আরিচপুর মসজিদ রোডের দারুস সালাম মাদ্রাসা কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন নৌকার প্রার্থী আজমত উল্লা। ভোট দিয়েই জয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

আজমত উল্লা কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার পর সাংবাদিকদের বলেন, “নতুন ভোটার, যুবক ও নারীদের মধ্যে একটা উৎসাহ দেখা গেছে। ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। উৎসবমুখর পরিবেশে মানুষ ভোট দিচ্ছেন। আমি জয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদী।”

হাতের ছাপ না মেলায় ভোট দিতে এসেও দিতে পারেননি আজমত উল্লার ভাই। এই বিষয়ে তিনি বলেন, “তার একটু ঝামেলা হয়েছে। স্মার্ট কার্ড আনতে গেছে। সেটি আনলেই ভোট দিতে পারবে। একইসঙ্গে কোনো ভোটারের যদি আঙুল ম্যাচ না করে তাহলে স্মার্ট কার্ড দিয়ে তিনি ভোট দিতে পারবেন।”

কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়ার বিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের এই প্রার্থী বলেন, “একটি প্রমাণ দেখান যে, কাউকে বের করে দেওয়া হয়েছে। কেউ যদি এজেন্ট না দেন আমাদের তো কিছু করার নেই।”

ইভিএমের ধীরগতির বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে আজমত উল্লা বলেন, ‍কয়েক জায়গায় থেকে এমন অভিযোগ এসেছে। তবে নির্বাচন কমিশন ঠিক করে ফেলছে। আমি অনুরোধ করবো, যদি নির্দিষ্ট সময়ের পর ভোটার বাকি থেকে যায় তাহলে যেন সময় বাড়িয়েও ভোট নেওয়া হয়।”

নির্বাচন কমিশনের তথ্যানুযায়ী, গাজীপুর সিটিতে মোট ভোটার ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৭৬ জন। তাদের মধ্যে ৫ লাখ ৯২ হাজার ৭৬২ জন পুরুষ, ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৬৯৬ জন নারী ও ১৮ জন হিজড়া। এই সিটিতে ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ড আছে। মোট ভোটকেন্দ্র ৪৮০টি, মোট ভোটকক্ষ ৩ হাজার ৪৯৭টি। প্রতি কেন্দ্রে একটি এবং কক্ষে একটি করে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে।

জিএমপির উপ-কমিশনার (এসবি) আবুল বাশার মো. আতিকুর রহমান জানান, পাঁচ হাজার পুলিশ সদস্য, ৯৬০ জন আনসার ব্যাটালিয়ন, চার হাজার ৮০০ গ্রাম পুলিশ, ৫৭টি ওয়ার্ডে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে আনসার সদস্য ভোটের নিরাপত্তায় রয়েছে। এ ছাড়াও ১৯ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ২০ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাব সদস্যরা মোতায়েন থাকবে।

About

Popular Links