Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

উড়তে থাকা প্রার্থীদের মাটিতে নামালো বৃষ্টি

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ভোটের প্রচারণার পোস্টার বৃষ্টিতে ধুয়ে গেছে

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৩, ০৫:৩৮ পিএম

খুলনায় বইছে নির্বাচনের হাওয়া। নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী, পোস্টার সাঁটিয়েছেন প্রার্থীরা। পোস্টারের ওপরের প্রান্তে আঠা লাগিয়ে সুতলির সঙ্গে সাটানোর পর সেটি পথের ওপর বা দুই পাশের বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে ঝুলানো হয়েছে। এতে পুরো শহর সুতায় বাধা লাখ লাখ পোস্টারের মাকড়সা জালে পরিণত হয়েছে। বিশেষ করে পাড়া-মহল্লার গলিগুলো ছিল প্রায় ছাদের মতো ঢাকা। কোথাও কোথাও এমন অবস্থা ছিল যে, পথে নামলে আকাশ দেখা যাচ্ছিল না।

সকাল পর্যন্তও এসব পোস্টারে সারা শহর ছেয়ে ছিল। কিন্তু শুক্রবারের (৯ জুন) গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে পরিবেশ বদলে গেছে।

এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কোথাও কোথাও কেবল সুতলি ঝুলছে, পোস্টার নেই। কোথাও কোথাও দড়ি-সুতলি ছিঁড়ে বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। তবে যারা একটু দূরদর্শিতার পরিচয় দিয়ে পোস্টারগুলো পলিথিনের প্যাকেটে ভরে দড়িতে আটকে দিয়ে ছিলেন, তাদের কিছুটা রক্ষা।

বৃষ্টিতে পোস্টারের পতনে ব্যথিত প্রার্থী ও তাদের কর্মীরা। নির্বাচনী প্রার্থীদের কর্মীরা জানান, পোস্টারগুলো নষ্ট হওয়ায় আবার তাদের পোস্টার লাগাতে হবে। এতে দ্বিগুণ খরচ করতে হবে। দুদিন দিনভর গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির ফলে প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বিঘ্ন সৃষ্টি হয়। বৃষ্টিপাতের ফলে তুলনামূলক প্রচারণী তত্পরতা কম থাকলেও অনেকে ছাতা হাতে নিয়ে বেরিয়েছে প্রচার-প্রচারণায়।

১৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ঘুড়ি প্রতীকের এসএম আমিনুর রহমান বলেন, ছাপানো সকল পোস্টারই ইতোমধ্যে সাঁটানো হয়েছে। হঠাৎ বৃষ্টিতে তা ক্ষতিগ্রস্ত হল। এখন এই স্বল্প সময়ের মধ্যে নতুন করে পোস্টার ছাপিয়ে সাঁটানো কঠিন কাজ। এ বৃষ্টির কারণে প্রচারে বিঘ্ন সৃষ্টি হল।

কেসিসি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. আলাউদ্দিন বলেন, ১০ জুন রাত ৮টা পর্যন্ত মাইকিং ও রাত ১২টা পর্যন্ত সকল ধরনের প্রচার প্রচারণা চলবে। আর পোস্টার লাগানো বা ভোটারদের স্লীপ বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কাজ চলতে বাঁধা নেই। ১২ জুন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

খুলনা আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিরুল আজাদ জানান, শুক্রবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত খুলনায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১ মিলিমিটার। তবে আকাশ মেঘলা রয়েছে। সন্ধ্যা বা রাতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃহস্পতিবারও ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। ১২ জুন পর্যন্ত এ পরিস্থিতি চলতে পারে। ১৪ জুনের পর আবার বৃষ্টির মৌসুম শুরু হবে।

About

Popular Links