Sunday, May 19, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

খুলনায় গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধিতে ভোগান্তিতে যাত্রীরা

তেলের দাম বাড়ার পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধিতে খুলনা থেকে আঞ্চলিক রুটে রুটভেদে ২০-১০০ টাকা করে ভাড়া বেড়েছে

আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০২১, ১০:৩১ পিএম

করোনাভাইরাস মহামারির প্রভাবে দেড় বছর বাস চলাচল বন্ধ ছিল। এখন তেলের দাম বাড়ার কারণে গণপরিবহনের ভাড়া বাড়িয়েছে সরকার। এরপরই খুলনা থেকে আঞ্চলিক রুটে রুটভেদে এ ভাড়া ২০-১০০ টাকা করে বেড়েছে। ফলে ভোগান্তির মুখে পড়েছেন যাত্রীরা। পরিবহন ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্তে জনমনেও সৃষ্টি হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

বরিশাল রুটের ভাটার যাত্রী মশিউর রহমান বলেন. “আগে ভাড়া ছিল ২০০ টাকা। এখন নিচ্ছে ৩০০ টাকা। এটা মেনে নেওয়া কঠিন।”

গোপালগঞ্জের যাত্রী মাহবুব আলম বলেন. “আগে ১০০ টাকায় যাতায়াত করতাম। এখন ২০ টাকা বেড়েছে।”

টিকিট ম্যান মোশাররফ হোসেন বলেন. “সরকার নির্ধারিত নিয়মে গোপালগঞ্জ পর্যন্ত ভাড়া বাড়ে ৩৮ টাকা। কিন্তু যাত্রীর কথা বিবেচনায় নিয়ে আমরা ২০ টাকা বেশি নিচ্ছি।”

পাইকগাছা রুটের সুপারভাইজার সঞ্জয় রায় জানান. তারা ২০ টাকা ভাড়া বাড়িয়েছেন।

রূপসা-বাগেরহাট বাস মিনিবাস মাইক্রোবাস সমিতির সভাপতি নূরুল হক লিপন জানান, “তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়েও আমরা কম নিচ্ছি।”

খুলনা মটর বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান বলেন, “করোনাভাইরাসে দেড় বছর বসে থাকায় এই সেক্টর অনেক ক্ষতিগ্রস্ত। এরপরেও গাড়ির ট্যাক্স বাড়িয়ে দেয়া হয়। তার ওপর তেলের দাম বাড়ে। ভাড়া বৃদ্ধিতে জনগণের ওপর চাপ পড়ছে। তাদের সঙ্গে ভাড়া নিয়ে তর্কবিতর্ক হয়, যেটা আমরা চাই না।”

যাত্রী কল্যাণ সমিতির খুলনা জেলা সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার রফিকুল ইসলাম বলেন, “গণশুনানী করে অথবা যাত্রীদের প্রতিনিধির সঙ্গে সমন্বয় করে ভাড়া পুননির্ধারণ করা হলে যাত্রীদের জন্য কল্যাণকর হতো।” 

সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর খুলনা বিভাগীয় সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কুদরত-ই খোদা বলেন, “পরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির ফলে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিসহ সব ক্ষেত্রে এর প্রভাব পড়বে। এমনিতেই দ্রব্যমূল্যের ঊধর্বগতির সাথে তেলের দাম বৃদ্ধিসহ পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধি করায় সাধারণ জনগণের নাভিশ্বাস। চরম বিপাকে পড়বে তারা।”

উল্লেখ্য, তিন দিন ধরে ধর্মঘটের মুখে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) বাস মালিকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে প্রতি কিলোমিটারে বাস ভাড়া ২৭% বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যদিও ডিজেলের দাম বাড়ানো হয়েছে ২৩%।

About

Popular Links