Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সুন্দরবনে কয়লাবোঝাই কার্গোডুবি, নিখোঁজ ৫

কয়লা ভর্তি জাহাজ ডুবি সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্যর জন্যে মারাত্মক বিপর্যয়ের সৃষ্টি করছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা

আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০২১, ০৪:২১ পিএম

সুন্দরবনের হারবাড়িয়া এলাকায় “এম ভি ফারদিন ১” নামে একটি কার্গো (লাইটার) জাহাজ কয়লাসহ পশুর নদীতে ডুবে গেছে। এ ঘটনায় এখনও ৫ ন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) সকাল পৌনে ১১টা পর্যন্ত তাদের সন্ধান মেলেনি। এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ৯ নম্বর এলাকায় কার্গোটি ডুবে যায়। 

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার ও সচিব (ভারপ্রাপ্ত) শেখ ফখরউদ্দীন এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, “সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে হারবাড়িয়ায় ৯ নম্বরে ডুবির সময় কার্গোটিতে ৭ জন লোক ছিলেন। ২ জন তীরে উঠলেও মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১১ টা পর্যন্ত ৫ জনের সন্ধান মেলেনি।”

তিনি বলেন, “ফারদিন ১ কার্গোটি জাহাজ থেকে প্রায় সাড়ে ৩শ’ টন কয়লা নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। হারবাড়িয়া ৯ এ একটি মার্টিন জাহাজের সাথে ধাক্কা খায় কার্গোটি। এরপর কার্গোটি ডুবতে শুরু করে। কার্গোর লোকজন এ অবস্থায় সেটিকে তীরের কাছাকাছি নিতে সক্ষম হয়। একপর্যায়ে কম পানির এলাকায় কার্গোটি ডুবে যায়। পানি কম থাকায় সম্পূর্ণ কার্গোটি ডুবতে পারেনি কোস্ট গার্ড এবং বন্দরের উদ্ধারকারী নৌযান উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে।”

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) বাগেরহাটের আহ্বায়ক পশুর রিভার ওয়াটারকিপার মো. নূর আলম শেখ বলেন, “কয়লা ভর্তি জাহাজ ডুবির ঘটনা সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্যর জন্যে মারাত্মক বিপর্যয়ের সৃষ্টি করছে। কয়লা যেহেতু বিষ এবং ক্ষতিকর পদার্থ। তাই  জলজপ্রাণীর প্রজনন থেকে শুরু খাদ্যচক্রে বিরুপ প্রভাব পড়বে। প্রতিনিয়ত কয়লা, তেল, সার ভর্তি জাহাজ ডুবলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কোনো ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করছে না।”

About

Popular Links