Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মুরাদ হাসানের অশালীন বক্তব্যের ৯৪টি ভিডিও সরিয়েছে ফেসবুক

বিটিআরসির পাঠানো মুরাদের ১২০টি ইউটিউব কনটেন্টের মধ্যে থেকে মাত্র দুটি সরানো হয়েছে

আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৩৭ পিএম

সদ্য পদত্যাগ করা তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্যের ৯৪টি ভিডিও লিংক সরিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে মুরাদ হাসানের অডিও-ভিডিও সরিয়ে ফেলতে হাইকোর্টের নির্দেশের পর বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ২৬৮টি লিংক সরানোর জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জানায়।

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) বিটিআরসির কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদারের সঙ্গে টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের (টিআরএনবি) এক মতবিনিময় সভায় বিটিআরসির সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিস বিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাসিম পারভেজ এ তথ্য জানিয়েছেন।

মো. নাসিম পারভেজ বলেন, “ধর্ষণ শব্দ যে কনটেন্টগুলোতে আছে, সেগুলো বিটিআরসি বলার আগেই ফেসবুক সরিয়ে দিয়েছে।”

ফেসবুক থেকে এখনও না সরানো কনটেন্ট বিষয়ে তিনি বলেন, “ভিডিও কনটেন্টে অতিরিক্ত কিছু কথোপকথন থাকে। সেটা আলাদা করে দেখতে হয়। ২০২১ সালে থেকে ফেসবুকের সঙ্গে সম্পর্কের খুব উন্নতি হয়েছে। এখন তিন মাস পরপর মিটিং হয় তাদের সঙ্গে।”

এদিকে, বিটিআরসির পাঠানো মুরাদের ১২০টি ইউটিউব কনটেন্টের মধ্যে থেকে মাত্র দুটি সরানো হয়েছে। 

এ বিষয়ে মো. নাসিম পারভেজ বলেন, “ইউটিউবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। কিন্তু ইউটিউব তাদের নীতিমালায় খুবই দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। সেখানে কনটেন্ট রিপোর্টিংয়ের ব্যবস্থা আছে। রিপোর্ট করার পর তাদের দল কাজ করে। বিটিআরসির সঙ্গে ‘টিম বিল্ডিং’ আরও ভালো করতে ইউটিউব এখনও রাজি হচ্ছে না। তবে বিটিআরসি চেষ্টা চালাচ্ছে।”

ফেসবুক ও ইউটিউবের কোনো কনটেন্ট সরিয়ে ফেলার ক্ষমতা কোনো দেশের নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠানের নেই বলেও জানান মো. নাসিম পারভেজ।

About

Popular Links