Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ওমিক্রন: জনসমাগম নিয়ন্ত্রণ চায় কারিগরি কমিটি

‘সবধরনের সভা-সমাবেশ‘ ও ‘জনসমাগম‘ সীমিতকরণ করার পাশাপাশি ষাটোর্ধ্ব ও ফ্রন্ট লাইনারদের বুস্টার ডোজ দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে জাতীয় কমিটির পক্ষ থেকে

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৪:২১ পিএম

দেশে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার “ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন“ হিসেবে ঘোষিত করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।দেশে নতুন এই ধরনটির সংক্রমণ  নিয়ন্ত্রণে “সবধরনের সভা-সমাবেশ“ ও “জনসমাগম“ সীমিত করার পরামর্শ দিয়েছে জাতীয় কমিটি।

সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা স্বাক্ষরিত এক কার্যবিবরণীতে এ তথ্য জানা গেছে।

কার্যবিবরণীতে বলা হয়, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক পরামর্শক কমিটির কাছে বুস্টার ডোজের বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে বৈঠকে বসেন কমিটির সদস্যরা। কমিটির সব সদস্যের উপস্থিতিতে দীর্ঘ আলোচনা শেষে দুটি সুপারিশের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

“সবধরনের সভা-সমাবেশ“ ও “জনসমাগম“ সীমিতকরণ করার পাশাপাশি ষাটোর্ধ্ব ও ফ্রন্ট লাইনারদের বুস্টার ডোজ দেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে জাতীয় কমিটির পক্ষ থেকে।

অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা বলেন, “কোভিড ১০ রুটিন ভ্যাক্সিনেশনের জন্য টিকা নিশ্চিত করে ষাটোর্ধ্ব ও ফ্রন্টলাইনার; যাদের দুই ডোজ টিকা নেওয়া অন্তত ছয় মাস আগে সম্পন্ন হয়েছে, তাদের বুস্টার ডোজ দেওয়া যেতে পারে।“

About

Popular Links