Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের করোনাভাইরাস শনাক্ত

২০২০ সালে কোভ্যাক্স প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা শুরু করে যুক্তরাজ্য এবং বিশ্বের নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে টিকার চাহিদা মেটাতে মোট ৫৪৮ মিলিয়ন পাউন্ড দিয়েছে। এই কোভ্যাক্স স্কিমটি ৮৩টি নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশসহ ১৩৭টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ১৫২ মিলিয়নেরও বেশি টিকার ডোজ সরবরাহ করেছে

আপডেট : ১৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:৪৩ পিএম

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বাংলাদেশকে ৪০ লাখ ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) কোভ্যাক্স প্রকল্পের আওতায় টিকার এ চালান ঢাকায় পৌঁছায়। ঢাকার যুক্তরাজ্য দূতাবাস এ তথ্য জানিয়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট ডিকসন বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশ মহামারির কারণে কঠিন সময় পার করেছে। এই মহামারি থেকে আরও উত্তম, নিরাপদ, পরিবেশবান্ধবভাবে উত্তরণে আমরা উভয় দেশই একসঙ্গে কাজ করছি।

বাংলাদেশকে যুক্তরাজ্যের এই টিকা অনুদান দুই দেশের মধ্যে বিরাজমান ব্রিট-বাংলা বন্ধনের একটি শক্তিশালী বহিঃপ্রকাশ। মানুষের জীবন বাঁচাতে ও মহামারি মোকাবিলা করতে বাংলাদেশকে সহায়তা করার জন্য যা প্রয়োজন যুক্তরাজ্য তা অবশ্যই করবে।

দূতাবাস বলছে, চলতি বছর জি-৭ সম্মেলনে যুক্তরাজ্য ২০২২ সালের মধ্যে সারা বিশ্বে ১০০ মিলিয়ন করোনাভাইরাস টিকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। বাংলাদেশকে দেওয়া টিকার এ অনুদানটি জি-৭ সম্মেলনের প্রতিশ্রুতির ফলস্বরূপ এসেছে। যুক্তরাজ্যের অনুদানের টিকার ডোজগুলোর ৮০% কোভ্যাক্স সুবিধার মাধ্যমে বিতরণ করা হবে।

২০২০ সালে কোভ্যাক্স প্রতিষ্ঠার প্রচেষ্টা শুরু করে যুক্তরাজ্য এবং বিশ্বের নিম্নআয়ের দেশগুলোতে টিকার চাহিদা মেটাতে এখন পর্যন্ত ৫৪৮ মিলিয়ন পাউন্ড অর্থ সহায়তা দিয়েছে তারা। এই কোভ্যাক্স স্কিমটি ৮৩টি নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশসহ ১৩৭টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ১৫২ মিলিয়নেরও বেশি টিকার ডোজ সরবরাহ করেছে।

About

Popular Links