Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের জান্নাত চেয়ে আওয়ামী লীগ নেতার ভিডিও ভাইরাল!

ভাইরাল হওয়া ১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে ‘জাতির জনক এবং তার পরিবারকে যারা হত্যা করেছেন, সবাইকে জান্নাত দান করে দিও আল্লাহ’ বলতে শোনা যায়

আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৩৪ পিএম

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ মোনাজাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারীদের জান্নাত চাওয়ায় এক আওয়ামী লীগ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বহিষ্কৃত ওই নেতার নাম খন্দকার মো. আব্দুর রাজ্জাক। তিনি তাহেরপুর পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজশাহী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু বাক্কার মৃধা মনসুর ও সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, “বিজয় দিবসের বিশেষ মোনাজাতের সময় আব্দুর রাজ্জাক অনাকাঙ্ক্ষিত, অপ্রত্যাশিত ও অগ্রহণযোগ্য একটি শব্দ উচ্চারণ করে ফেলেন।  তাই নেতা-কর্মীদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।”

তারা আরও জানান, আবদুর রাজ্জাকের দলের সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগ ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগ বরাবর আবেদন করা হয়েছে।  

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার তাহেরপুর শহীদ মিনার চত্বরে বহিষ্কৃত নেতা আবদুর রাজ্জাকের পরিচালনায় মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

মোনাজাতে পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদও উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর পর জাতির পিতাকে নিয়ে মোনাজাতের ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ার পর তাতে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের জান্নাত চাওয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। ভাইরাল হওয়া ১৬ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যায়, আবদুর রাজ্জাক বলেন, “মাবুদ জাতির জনক এবং তার পরিবারকে যারা হত্যা করেছেন, আল্লাহ তাদের সবাইকে জান্নাত দান করে দিও আল্লাহ।”

এ কথার পর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদসহ উপস্থিত আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের সবাইকেই আমিন বলতে শোনা যায়।

এ বিষয়ে পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ বলেন, “মোনাজাতের সময় ভুলবশত এমন ঘটনা ঘটে গেছে। পরে তা সংশোধন করা হয়েছিল।”

About

Popular Links