Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চালুর আগেই যুক্তরাষ্ট্র থেকে কেনা ট্রেন ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ চুরি

যুক্তরাষ্ট্র থেকে রেলওয়ের জন্য ১,১২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪০টি ব্রডগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক (ডিই) লোকমোটিভ ইঞ্জিন কেনার চুক্তি করে বাংলাদেশ

আপডেট : ১৩ জুলাই ২০২৩, ০৬:৪৬ পিএম

চট্টগ্রামের গুডস পোর্ট ইয়ার্ডে (সিজিপি-ওয়াই) যুক্তরাষ্ট্র থেকে কেনা তিনটি নতুন ট্রেনের ইঞ্জিন থেকে যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে। এ ঘটনায় এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী (আরএনবি)।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে রেলওয়ের জন্য ১,১২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪০টি ব্রডগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক (ডিই) লোকমোটিভ ইঞ্জিন কেনার চুক্তি করে বাংলাদেশ। এরমধ্যে ৩০টি ইঞ্জিন এখন পর্যন্ত দেশে নিয়ে আসা হয়েছে। সবশেষ গত ২৭ জুন পাঁচটি ইঞ্জিন চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে গুডস পোর্ট ইয়ার্ডে পৌঁছে। 

সম্প্রতি সেগুলো পশ্চিমাঞ্চলে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি নেওয়া হলে তিনটির যন্ত্রাংশ চুরির বিষয়টি ধরা পড়ে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে অনলাইন সংবাদমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউন।

চট্টগ্রাম আরএনবির কর্মকর্তা রেজোয়ানুর রহমান সংবাদমাধ্যমটিকে বলেন, “সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তাকর্মীরা ইঞ্জিনের পাহারায় ছিলেন। ইঞ্জিনগুলো মোড়কজাত অবস্থায় আছে। এর মধ্যে তিনটির কিছু যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে। যে কারণে সেগুলো পশ্চিমাঞ্চল রাজশাহীতে পাঠানো সম্ভব হচ্ছে না।”

চুরি হওয়া যন্ত্রাংশ যুক্তরাষ্ট্র থেকে নিয়ে আসার পরে এসব ইঞ্জিন সচল করা সম্ভব হবে বলে জানান রেলের এক কর্মকর্তা।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের নিরাপত্তা বাহিনীর চিফ কমান্ড্যান্ট জহিরুল ইসলাম বলেন, “ইঞ্জিনগুলো সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান আমাদের বুঝিয়ে দেয়নি। এ চুরির পেছনে কার গাফিলতি ছিল তা তদন্ত করতে এক সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।”

এক সদস্যের কমিটিতে আছেন আরএনবির চট্টগ্রাম রেল স্টেশন এলাকায় দায়িত্বরত চিফ ইন্সপেক্টর (সিআই) রেজওয়ানুর রহমান। 

তিনি বলেন, “মৌখিকভাবে শুনেছি, আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে এ সংক্রান্ত কাগজপত্র এখনো পাইনি। কাগজপত্র পাওয়ার পর কাজ শুরু করবো।”

About

Popular Links