Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চট্টগ্রাম-বান্দরবানে পাহাড় ধস, যান চলাচল স্বাভাবিক

সাড়ে ১২টার দিকে বান্দরবান-থানচি সড়কে এবং ১১টার দিকে লালখান বাজার-টাইগার পাস সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২৩, ০৬:৫৩ পিএম

রাতভর বৃষ্টিতে পাহাড় ধসের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া চট্টগ্রাম নগরীর লালখান বাজার-টাইগার পাস সড়ক ও বান্দরবান-থানচি সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

শুক্রবার (৪ আগস্ট) ফায়ার সার্ভিস ও সেনা‌বা‌হিনীর ১৬ ইসি‌বির সদস্যদের যৌথ প্রচেষ্টায় বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বান্দরবান-থানচি সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। এছাড়া বেলা ১১টার দিকে লালখান বাজার-টাইগার পাস সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে পাহাড়ের একাংশ ধসে পড়লে নগরীর অন্যতম প্রধান এই সড়কটিতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পাহাড় ধসে রাস্তায় একটি মাইক্রোবাসে পড়লে সেটি আটকে যায় এবং চালক গাড়ি থেকে ছিটকে পড়লেও প্রাণে বেঁচে যান। এই দুর্ঘটনার পর লালখান বাজার থেকে টাইগার পাসগামী অংশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের চট্টগ্রাম অঞ্চলের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, “ধসে পড়া পাহাড়ের মাটি বেলচা দিয়ে কেটে সরিয়ে নিতে প্রায় দুই ঘণ্টা সময় লেগেছে। বেলা ১১টার দিকে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। মাটি চাপায় আটকে পড়া মাইক্রোবাসটিও ক্রেন দিয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়।”

তিনি জানান, এ ধরনের কাজে সাধারণত এক্সক্যাভেটর ব্যবহার করা হয়। কিন্তু ফায়ার সার্ভিসের এক্সক্যাভেটরটি অন্য জায়গায় কাজে থাকায় সেটি এখানে আসতে পারেনি। মাটি সরাতে এক্সক্যাভেটর চেয়ে সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করেও সাড়া পায়নি ফায়ার সার্ভিস।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে বান্দরবান-থান‌চি সড়কের নীলগিরি ও জীবন নগরের মধ্যবর্তী স্থানে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। এতে এতে থানচির সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। সকাল থেকে থানচি ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ও সেনাবাহিনীর ১৬ ইসিবি যৌথভা‌বে চেষ্টা চালিয়ে পাথর‌টি সরালে সাড়ে ১২টার পর সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়।

এ বিষয়ে থানচি ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের টিমলিডার তরুণ জ্যোতি বড়ুয়া জানান, সড়ক যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে কিন্তু রাস্তায় মা‌টি জ‌মে থাকায় খুবই পিচ্ছিল। তাই মোটরসাইকেল খুব সাবধানে চালাতে হবে। রাস্তা পিচ্ছিল হওয়ায় চালকদের সাবধানে গাড়ি চালানোর অনুরোধ জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা।

About

Popular Links