Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজধানীর ভাটারায় বন্ধুর নিয়ে আসা মদপানে তরুণীর মৃত্যু

ঢামেকে ভর্তি তরুণী জানান, রাব্বি নামে জান্নাতের এক বন্ধু গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের বাসায় মদ নিয়ে যান। তারা দুজন অর্ধেক পরিমাণ খেয়ে ফেলেন। পরে তাকে খাওয়ার প্রস্তাব দেন। তিনি প্রথমে খেতে চাননি

আপডেট : ০২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:০৫ পিএম

রাজধানীর ভাটারার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি বাসায় অতিরিক্ত মদ্যপানে জান্নাত (২২ নামে এক তরুণীর মৃত্যু হয়েছে। একই ঘটনায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে আরও এক তরুণীকে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত জান্নাত ও আহত তরুণী সম্পর্কে খালাতো বোন। তারা বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি ফ্লাট ভাড়া নিয়ে থাকতেন। দুজনেই বিউটি পার্লারে কাজ করতেন।

শনিবার (২ সেপ্টেম্বর) ঢামেক হাসপাতালে জান্নাতের মৃত্যু হয়। ঢাকা ট্রিবিউনকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া।

তিনি বলেন, “মরদেহ ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে জানানো হয়েছে।”

ঢামেকে ভর্তি তরুণী জানান, রাব্বি নামে জান্নাতের এক বন্ধু গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের বাসায় মদ নিয়ে যান। তারা দুজন অর্ধেক পরিমাণ খেয়ে ফেলেন। পরে তাকে খাওয়ার প্রস্তাব দেন। তিনি প্রথমে খেতে চাননি। পরে তাদের অনুরোধে কয়েক ছিপি খান। এতে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর ঘুমিয়ে পড়েন। পরের দিন বেলা ১২টার দিকে দেখেন জান্নাত ঘুমাচ্ছে, আর রাব্বি চলে গেছে।

শুক্রবার দুজনের অসুস্থতা বেড়ে যায়। পরে টঙ্গীর একটি হাসপাতালে ঢামেকে ভর্তি হওয়া তরুণী পরামর্শের জন্য যান। সেখানে তাকে স্যালাইন দেওয়া হয়। সেই স্যালাইন জান্নাতকেও দেওয়া হয়। এভাবে শুক্রবার কেটে যায়।

তিনি বলেন, শনিবার ভোরে দেখি জান্নাত কথা বলতে পারছিল না। তার শরীর খুবই খারাপ হয়ে যাচ্ছে। পরে দ্রুত তাকে নিয়ে প্রথমে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে যাই। সেখানকার চিকিৎসক ঢামেক হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। ঢামেকে নেওয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক জান্নাতকে মৃত ঘোষণা করেন।

জান্নাতের বন্ধু রাব্বির বিষয়ে তিনি কিছু জানাতে পারেননি। রাব্বির মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে।

About

Popular Links