Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘নির্বাচনের আগে ও পরে সংখ্যালঘু নির্যাতনের প্রবণতা বেড়ে যায়’

  • এ ধরনের কোনো সহিংসতার বিচার হয়নি
  • সংবিধান অনুযায়ী অধিকার নিশ্চিত করতে হবে
আপডেট : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:১০ পিএম

নির্বাচনের আগে ও পরে সংখ্যালঘু নির্যাতনের প্রবণতা বেড়ে যায়, এই সংকট থেকে উত্তরণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন সংখ্যালঘু অধিকার নেতারা।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের (বিএইচবিসিওপি) সাধারণ সম্পাদক রানা দাস গুপ্ত বলেন, “সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি ধর্মীয় জাগ্রত সংখ্যালঘু টার্গেট করে সহিংসতা চালায়। দেশে আজ পর্যন্ত এমন কোনো সহিংসতার বিচার হয়নি। বিচার না হওয়ার কারণে সংখ্যালঘু নির্যাতন বন্ধ হচ্ছে না।”

বিএইচবিসিওপি-এর রাঙ্গামাটি জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে তিনি বলেন, “আমরা মনে করি, শীঘ্রই বা পরে আমাদের আগামী নির্বাচনকে ঘিরে গভীর সংকটের মুখোমুখি হতে হবে।”

দীপন কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সভাপতি উষাতন তালুকদার, প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক উত্তম কুমার চক্রবর্তী ও শ্যামল পালিত।

রানা দাস গুপ্ত আরও বলেন, “স্বাধীনতার ৫২ বছর পর দেশের নির্বাচন কীভাবে হবে তা নিয়ে পরাশক্তিরা রাজনীতি করছে; আমরা এ নিয়ে চিন্তিত।”

তিনি আরও বলেন, “সংবিধানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে জনগণের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে।”

About

Popular Links